sliderস্থানীয়

পটিয়ায় প্যানেল চেয়ারম্যান নিয়ে পরিষদে তালা, উত্তেজনা

সেলিম চৌধুরী, পটিয়া,চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার ১২নং হাইদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের প্যানেল মনোনয়ন নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এরমধ্যে মঙ্গলবার সকালে পরিষদের চেয়ারম্যান, সচিব, কম্পিউটার রুমসহ বিভিন্ন রুমে তালা ঝুলে দিয়েছে পরিষদের সদস্যরা। ফলে এলাকার লোকজন পড়েছেন বিপাকে। এর আগে সোমবার বিকেলে সি-ব্লক থেকে ইউপি সদস্য আবদুর রাজ্জাক চৌধুরী, তছলিমা নুর ও মো.নাসির উদ্দিনকে চেয়ারম্যানের প্যানেলের দায়িত্ব দিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারী করেছে। এই প্যানেলের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার পরিষদের সদস্য ও সদস্যরা বিক্ষোভ করে বাতিলের দাবি জানান। খবর পেয়ে পটিয়া থানা পুলিশ ইউনিয়ন পরিষদে ছুটে যায়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত পরিষদে তালাবদ্ধ অবস্থায় রয়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নে গত ২৯ এপ্রিল একটি মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামী করে একটি মামলা করা হয়। প্রায় দুই মাস পর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় থেকে তিনজনকে প্যানেল চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয়। অথচ এর আগে পরিষদের ৯জন ইউপি সদস্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিত করে। তারপরও একই এলাকার তিনজনকে প্যানেল চেয়ারম্যানের জন্য একটি প্রজ্ঞাপনা জারী হওয়ার পর এ উত্তেজনা চলছে। জারী করা প্রজ্ঞাপনে যে তিনজন ইউপি সদস্যের নাম উল্লেখ করা হয়েছে তাদের কেউ পরিষদে ছিলেন না। এদিকে, মঙ্গলবার সকালে পরিষদের হল রুমে এক প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে পরিষদের আবদুল মান্নান গণি ক্ষোভ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, হাইদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাত করতে মতামত ছাড়াই তিনজনের একটি প্যানেল চেয়ারম্যান করা হয়েছে। তারা তিনজনেই একই ব্লকের। এর মধ্যে আবদুর রাজ্জাক (৭নং ওয়ার্ড), তছলিমা নুর (৭,৮,৯) ও মো. নাসির (৮নং ওয়ার্ড)। দ্রুত প্যানেল চেয়ারম্যান বাতিল করার দাবি জানান। প্রেস ব্রিফিং এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. ফৌজুল আবেদীন সজীব, আবুল কাসেম, আবদুল মান্নান গণি, পারভীন আকতার, রাসুলে হাদ্দাম, রেখা দাশ ও মো. হেলাল উদ্দিন। পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, হাইদগাও ইউনিয়ন পরিষদে যাতে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না হয় সেজন্য পুলিশ অবস্থান করছে।
 

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button