sliderমহানগরশিরোনাম

১৪ বছরেও বিজয় রাকিন সিটির নির্মাণ কাজ শেষ না করায় ভুক্তভোগীদের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৩ই জুন ২০২৪ বৃহস্পতিবার বিকেল ৫.৩০ মিনিটে কাফরুল থানার অফিসার ইনচার্জ ফারুকুল আলমের সভাপতিত্বে বিজয় রাকিন সিটিতে বিট নং ০৭ এর অধীন বিট পুলিশিং কার্যক্রমের মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে একাধিক বক্তব্যে বলেন, নির্মাণ কাজ ২০১৬ সালে রাকিন ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি কর্তৃক শেষ করার চুক্তি থাকলেও ১৪ বৎসর অতিক্রান্ত হওয়ার পরও নির্মাণ কাজ শেষ করতে বারবার তাগাদা দেওয়া সত্বেও বিভিন্ন তালবাহানা করে নির্মাণ কাজ এই ডেভেলপার কোম্পানি শেষ করতে না পারায় সিটির ২য় গেট নির্মাণ না হওয়ায় যখন-তখন বহিরাগত যে কেউ সিটির ভিতর ঢুকে অসামাজিক কাজের পাশাপাশি চুরি,মাদক সেবন, ছিনতাইয়ের মত ঘটনা হরহামেশাই ঘটছে। অপরদিকে রাকিন নির্মাণ কাজ শেষ করার দিকে মনোনিবেশ না দিয়ে রাকিন হতে ক্রয় সূত্রে গুটি কয়েক জামায়াত পন্থী কিংবা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থী ব্যক্তিদের সাথে যোগসূত্র রেখে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিনষ্ট করতে মুক্তিযুদ্ধের স্মারক ভাস্কর্য নির্মাণ স্থগিতের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে নানান কটুক্তির করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আঘাত করাসহ সিটিতে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারদেরকে উস্কিয়ে দিয়ে উদ্ভুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। ফলে সিটির মধ্যে এক ভীতিকর পরিস্থিতি সবসময় বিরাজমান রয়েছে। এছাড়াও রাকিন সিটির অসমাপ্ত নির্মাণ কাজ শেষ না করায় সিটিতে বসবাসরত বাসিন্দারা নানান দুর্ভোগের মাঝে বসবাস করার প্রেক্ষিতে বাসিন্দাদের মাঝে দিন দিন ক্ষোভ পুঞ্জিভূত হচ্ছে, ফলে এ অবস্থা থেকে উত্তরণের লক্ষ্যে রাকিনের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তারা বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে পাশ কাটিয়ে যাচ্ছে। এরুপ পরিস্থিতিতে কোন উপায়ন্তর না দেখে নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে ভুক্তভোগী বাসিন্দা কর্তৃক মানববন্ধন কর্মসূচি গ্রহণসহ বিভিন্ন আন্দোলন কর্মসূচি গ্রহণ করতে বাধ্য হচ্ছে, এতেও রাকিন দৃশ্যমান কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বিস্ময় ও তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ আরও জানান আগামীতে আরও কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে এবং ভুক্তভোগীদের পাশে থেকে সার্বিক সহযোগিতা করতে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের নিকট অনুরোধ করেন,সেই আলোকে কাফরুল থানার অফিসার ইনচার্জ সভার সভাপতি ফারুকুল আলম তিনি জানান আমরা থানার সকল কর্মকর্তাসহ মিরপুর জুনের এসি স্যার,এডিসি স্যার,ডিসি স্যারসহ পুলিশের অনেক উর্দ্ধতন স্যাররা বিজয় রাকিন সিটির বাসিন্দাদের দুর্ভোগের বিষয়টি অবগত রয়েছেন এবং আমরা বিজয় রাকিন সিটির ভুক্তভোগী বাসিন্দাদেরকে সকল প্রকার দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণে সবসময় পাশে রয়েছি ও ভবিষ্যতেও থাকবো,এ লক্ষে ভুক্তভোগী বাসিন্দাদের পাশে থেকে দুর্ভোগ সৃষ্টিকারী রাকিনের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে তা সমাধানের ব্যপারে চাপ প্রয়োগ করবেন এবং যে কোন সমস্যা হলে তা থানায় জানালে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস পাওয়া যায় ।

এই সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ ছাত্রলীগ নেতা ও ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুদ ই আলম, ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মেহেরুন্নেছা মেরী, সোসাইটির কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলু, সাহিদ হোসেন,পরিদর্শক অপারেশন আব্দুল বাতেন, বিট পুলিশিং ইনচার্জ এস আই আনিসুর রহমান ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button