sliderস্থানীয়

জেলেদের নৌকা নিলাম, জাল ও নৌকা হারিয়ে নিঃস্ব দুই জেলে

মাহতাবুর রহমান, আমতলী, বরগুনা : বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুল আলম ও সিনিয়র মৎস কর্মকর্তা হালিমা সর্দারের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। ২৫ জানুয়ারি বুধবার আব্বাস ও আলামিনের দুইটি নৌকা নিলামে তোলা হয়। আমতলী লঞ্চঘাটের পাশে ব্লকে বসে উন্মুক্ত নিলামের আয়োজন করা হয় এবং নৌকার নিলামকৃত মূল্য নির্ধারণ করা হয় যথাক্রমে এগারো হাজার চল্লিশ টাকা ও চার হাজার নয়শত পঞ্চাশ টাকা। জেলে আব্বাস ও আলামিন বলেন, আমরা গরীব মানুষ জীবিকার তাগিদে অবৈধ জাল ক্রয় করি বেশি মাছ পাওয়ায় আশায় কিন্তু এই জাল যারা তৈরি করে তাদের কারখানা যদি সরকার বন্ধ করে দেয় তাহলে তো জেলেরা এই জাল কিনতে পারবেনা আর এভাবে আমাদের নিঃস্ব হতে হবে না।

নিলামের ফলে দুই জেলে নিঃস্ব হয়ে গেছে এ ব্যপারে উপজেলা সিনিয়র মৎস কর্মকর্তা হালিমা সর্দারের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল জেলেদের কোন সুযোগ দেয়া হয়েছিল কিনা? এ ব্যাপারে হালিমা সর্দার বলেন অবৈধ জাল ব্যবহার না করতে তাদের বিভিন্ন উপায়ে সতর্ক করা হয়েছিল কিন্তু জেলেরা অতিলোভে অবৈধ জাল ব্যবহার করে মৎস্য নিধন করছিল তাই মৎস্য সুরক্ষা আইন ১৯৫০ সালের ৫ ধারা অনুযায়ী গত ১৯ জানুয়ারি বহস্পতিবার মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে ওই দুটি নৌকায় অবৈধ কারেন্টজাল সহ উদ্ধার করে জব্দ করে এবং জাল পুড়িয়ে ফেলা হয়েছিল তারই ধারাবাহিকতায় এই নিলামের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

Related Articles

Back to top button