‘৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে পারলে মহামারি শেষ হবে’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস বলেছেন, ২০২২ সালের জুলাইয়ের মধ্যে বিশ্বের প্রতিটি দেশের ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে পারলে করোনা মহামারী বন্ধ করা যাবে।
ওয়ান ক্যাম্পেইন নামে দারিদ্র্য নিরসন ও রোগ মোকাবিলা নিয়ে কাজ করা একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের টুইট শেয়ার করে গতকাল মঙ্গলবার এসব কথা বলেন ডব্লিউএইচও প্রধান।
তিনি বলেন, ‘আগামী জুলাইয়ের মধ্যে সব দেশের ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকার দেওয়ার লক্ষ্যে আমাদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় ওয়ান ক্যাম্পেইনকে ধন্যবাদ। আমরা যদি টিকা বণ্টনের ক্ষেত্রে এ সমতা অর্জন করতে পারি, তাহলেই মহামারির অবসানের দিকে যেতে পারব’।
টিকার বণ্টনে সমতা আনার জন্য দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বনেতাদের আহ্বান জানিয়ে আসছেন ডব্লিউএইচও প্রধান। কেননা, এখনো অনেক দেশের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক মানুষকে করোনার টিকা দেওয়া হয়নি। কারণ, এসব দেশ পর্যাপ্ত টিকা পায়নি। অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের প্রকোপ শুরুর পর উন্নত দেশগুলো বুস্টার ডোজ দিচ্ছে।
দেশে দেশে বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরুর মধ্যে সম্প্রতি তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘শুধু বুস্টার ডোজ দিয়ে কোভিড মহামারি অবসান ঘটানো সম্ভব নয়’।
গত ৩১ ডিসেম্বর তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস বলেন, মহামারি নিয়ে তিনটি প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে একটি হলো টিকা বণ্টনে সমতা আনা। এর দুই দিন আগে তিনি বলেন, ডেলটা ধরনের সঙ্গে অতি সংক্রামক ওমিক্রন ধরনের বিস্তার অত্যন্ত উদ্বেগের। এতে করোনা শনাক্তের সুনামি দেখা দিতে পারে।
টিকা প্রসঙ্গে গত ২৯ ডিসেম্বর ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, বছরের মাত্র কয়েক দিন বাকি। কিন্তু ১৯৪ সদস্যদেশের ৯২টি টিকা দেওয়ার লক্ষ্য পূরণ করতে পারেনি।
তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস সতর্ক করে বলেন, ধনী দেশগুলোয় টিকার বুস্টার ডোজে স্বল্প আয়ের দেশগুলোয় আবার টিকার সংকট দেখা দেবে। এ জন্য তিনি ধনী দেশগুলোর নেতা ও টিকা উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি ২০২২ সালের জুলাইয়ের মধ্যে সব দেশের ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।
সুত্র : দেশ রূপান্তর

Check Also

নবাবগঞ্জে শীতার্তদের পাশে প্রবাসী কল্যাণ ফান্ড

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি : ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় দুস্থ, অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ …