sliderস্থানীয়

হোমনায় সরকারি হসপিটালে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ, পরিস্থিতি মোকাবিলা পুলিশ

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) সংবাদদাতা: কুমিল্লার হোমনা সরকারি হসপিটালে চিকিৎসকের অবহেলায় ফাতেমা নামে ২১ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত ১১ টার দিকে হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয় ।

এ ঘটনায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার ও নার্সদের বিরুদ্ধে চিকিৎসা সেবায় অবহেলার অভিযোগ তুলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে পরিবারের লোকজন ও এলাকা বাসী। চিৎকার চেঁচামেচি ও তুমুল হৈচৈ শুরু হলে হাসপাতালে আতংক ছড়িয়ে পরে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। শিশু ফাতেমা হোমনা পৌর সভার ৪ নং ওয়ার্ডের ফকির বাড়ির আবদুর রহিমের মেয়ে।
ফাতেমার বাবা আবৃদুর রহিম জানান, ফাতেমা জ্বরে আক্রান্ত হলে একটি প্রাইভেট হসপিটালের ডাক্তার দেখাই। কিন্ত রোগীর অবস্থা বিবেচনা করে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে কর্তব্যরত নার্স শিশু ফাতেমাকে স্যালাইন পুশ করে, পরে অবস্থার অবনতি হতে থাকে। রাত ১১ টার দিকে ফাতেমার মৃত্যু বরন করে ।

এ ঘটনায় উর্ধ্বতন কর্তপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।
হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ আবদুছ ছালাম সিকদার বলেছেন, অসুস্থ শিশুটিকে একটি প্রাইভেট হসপিটালের ডাক্তার প্রথমে চিকিৎসা করেছেন। এতে অবস্থার উন্নতি না হলে শিশুটিকে সরকারি হাসপাতলে নিয়ে আসে, তখন অবস্থা খারাপ ছিল। তারপর, তাকে স্যালাইন দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে নার্সের কিছু করার ছিল না। শিশুটি মারা যাওয়ার পর স্বজনেরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি মোকাবিলা করে । বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়েছে । এবং খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
উল্লেখ্য এখানে আবাসিক মেডিকেল অফিসার এবং সার্বক্ষণিক এমবিবিএস ডাক্তার কর্মে অবহেলার বহু অভিযোগ রয়েছে বলে ভুক্তভোগী রোগীরা জানিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button