sliderসুস্থ থাকুন

সৌন্দর্যচর্চায় ডিমের এই ৪টি অসাধারণ ব্যবহার আপনি জানেন কি?

স্বাস্থ্য রক্ষায় ডিমের পুষ্টিগুণের কথা আমরা সবাই জানি। দেহের পুষ্টির চাহিদা পূরণে ডিমের ভূমিকা অপরসীম। ডিম শুধু পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে না, সৌন্দর্যচর্চাতেও এর ভূমিকা রয়েছে। ত্বকের সৌন্দর্য রক্ষার পাশাপাশি চুল সিল্কি ঝলমলে করতে ডিমের প্যাক বেশ কার্যকরী। সৌন্দর্যচর্চায় ডিমের এমন কিছু প্যাক আছে যা আপনাকে অবাক করে দিবে।
১। এগ ফেসিয়াল
এগ বা ডিমের ফেসিয়াল করতে অন্য কোন উপাদানের প্রয়োজন হয় না। একটি ডিমের কুসুম ত্বকে ভাল করে লাগান। ৫-৬ মিনিট পর কিছুটা শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বককে নরম কোমল এবং হাইড্রেটেড করে। অল্প সময়ে খুব সহজে ত্বকের যত্ন নিতে এই ফেসিয়াল করে নিতে পারেন।
২। ক্ষতিগ্রস্ত চুল ঠিক করতে
একটি ডিমের কুসুম, এক টেবিল চামচ মধু, এক টেবিল চামচ টকদই এবং আধা চাচামচ নারকেল তেল অথবা বাদাম তেল ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এটি চুলে ভাল করে লাগিয়ে দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধোয়ার চেষ্টা করুন। এটি চুলের আগা ফাটা রোধ করে, ক্ষতিগ্রস্ত চুল ঠিক করে থাকে।
৩। ডিম, গাজরের রসে এবং ক্রিমের ফেসপ্যাক
একটি ডিমের কুসুম, এক টেবিল চামচ ঘন ক্রিম এবং এক টেবিল চামচ ফ্রেশ গাজরের রস মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এই প্যাকটি ত্বকে লাগিয়ে ৫ থেকে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে রক্ত চলাচল বজায় রেখে ত্বক উজ্জ্বল এবং তারুণ্যদীপ্ত করে তোলে।
৪। স্বাস্থ্যোজ্বল চুলের জন্য
এক কাপ টকদই এবং একটি ডিমের কুসুম ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এই প্যাকটি চুলে লাগিয়ে নিন। এভাবে কমপক্ষে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি চুল ঝলমলে সিল্কি করে তুলবে।
৫। চোখের ফোলাভাব দূর করতে
চোখের নিচে ফোলাভাব দূর করতে ডিমের সাদা অংশ লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে ৩-৪ দিন করুন। এটি চোখের নিচের ফোলাভাব দূর করে দিবে।
লিখেছেন
নিগার আলম
ফিচার রাইটার, প্রিয় লাইফ

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button