sliderস্থানীয়

সিংড়ায় ইয়ারগান দিয়ে পাখি শিকার চলছে, তথ্য দিয়ে তিনব্যক্তি পেল শীতবন্ত্র

নাটোর প্রতিনিধি : সিংড়ার চলনবিলে পাখি শিকারের তথ্য দিয়ে শীতবস্ত্র উপহার পেলেন তিন ব্যক্তি। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পাঙ্গাশিয়া বাজারে তথ্যদাতা স্থানীয় দুই ব্যবসায়ী ও এক ছাত্রের হাতে এই শীতবস্ত্র তুলে দেন পরিবেশ বাদী সংগঠন চলনবিল জীববৈচির্ত্য রক্ষা কমিটির সদস্যরা। এসময় পাখি শিকার রোধে লিফলেট বিতরণ ও প্রচারণা চালানো হয়। আর ইয়ারগান দিয়ে পাখি শিকারকারী সোনাপুর গ্রামের মামুন হোসেন পালিয়ে গেলেও তার সহযোগী রুবেল আলীকে জনসম্মুখে আর কোন দিন পাখি শিকার করবে না মর্মে শপথ করিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। এসময় মৃত দুটি শামুকখোল পাখি উদ্ধার করা হয়।এসময় উপস্থিত ছিলেন চলনবিল জীববৈচির্ত্য রক্ষা কমিটির সাধারণ স¤পাদক সাইফুল ইসলাম, কলম প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সভাপতি সহকারী অধ্যাপক হারুন অর রশিদ, কলম ডিগ্রি কলেজের ভূগোলের প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান, স্থানীয় ইউপি সদস্য সাদ্দাম হোসেন, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্য আবু বকর সিদ্দিক, পরিবেশ কর্মী রিপন হোসেন প্রমূখ।চলনবিল জীববৈচির্ত্য রক্ষা কমিটির সাধারণ স¤পাদক সাইফুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার উপজেলার পাঙ্গাশিয়া বাজারে ইয়ারগান দিয়ে পাখি শিকার চলছে মর্মে মুঠোফোনে তথ্য দেন তিনব্যক্তি। পরে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাখি শিকারকারীকে আটক করতে না পরলেও তার সহযোগীকে জনসম্মুখে শপথ করিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। আর গুলিতে নিহত দুটি মৃত শামুকখোল পাখি উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, চলনবিলে পাখি ও প্রকৃতি বাঁচাতে প্রতি বছরের ন্যায় ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছেন। এই শীতে পাখি শিকারের সঠিক তথ্য দিলেই উপহার হিসেবে শীতবন্ত্র দেয়া হচ্ছে।
সিংড়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল ইমরান বলেন, চলনবিলে পাখি বাঁচাতে প্রতিনিয়তই পরিবেশ কর্মীরা কাজ করছেন। আর ইয়ারগান দিয়ে পাখি শিকারী মামুন হোসেন পালিয়ে গেলেও তার ঠিকানা সংগ্রহ করা হয়েছে। দ্রুতই ইয়ারগানটি জব্দ করা হবে বলে জানান তিনি ।

Related Articles

Back to top button