sliderস্থানীয়

সিংগাইরে সমাজসেবার ঘর ভেঙ্গে জমি দখলের অভিযোগ

সিরাজুল ইসলাম, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) : মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার ধল্লা ইউনিয়ন কাউন্সিল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান
শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের নির্মিত গণমিলনায়তন কেন্দ্রের ভবনটি ভেঙ্গে মালামাল অপসারণ ও ভূমি জবরদখলের অভিযোগে থানায় জিডি করা হয়েছে । সিংগাইর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মো.মনজুরুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার (৪ জুন) এ সাধারণ ডায়েরি করেন ।

জিডি ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিগত ১৯৮৪-৮৫ অর্থবছরে ওই স্কুল সংলগ্ন ২ শতাংশ জায়গায় সিংগাইর উপজেলা সমাজসেবা অফিসের পক্ষ থেকে গণমিলনায়তন কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হয় । এর কয়েক বছর পর সমাজসেবা অফিসে জনবল ঘাটতির কারণে প্রশিক্ষণ, সভা সেমিনার কম থাকায় ধল্লা ইউনিয়ন পরিষদ কিছুদিন ওই কেন্দ্রটি ব্যবহার করে। পরবর্তীতে ওই ঘরের বড় একটি অংশে স্থানীয় ভূমি অফিসের কাজ ও পরিচালনা করা হয়ে থাকে । ভূমি অফিসের কার্যক্রম নতুন ভবনে স্থানান্তর করা হলে বেশকিছু দিন ঘরটি বন্ধ ছিল । গত শনিবার (১ জুন) ছুটির দিনে সুযোগ বুঝে কাউকে না জানিয়ে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে ভবনটি অবৈধ ও বেআইনীভাবে ভেঙ্গে মালামাল অপসারণ ও জমি স্কুলের দখলে নেন । মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একজন প্রধান শিক্ষকের এহেন কর্মকান্ডে স্থানীয়দের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলেন,ঘরটি আমাদের জায়গায় । ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ছাত্ররা ভেঙে ফেলেছে। ঘটনাটি পত্রিকায় প্রকাশ না করার জন্য ও অনুরোধ করেন তিনি।

সিংগাইর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মো. মনজুরুল ইসলাম বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠান ভাঙ্গতে হলে একটা নিয়ম আছে। কাউকে
না জানিয়ে আমাদের অফিসের গণমিলনায়তন কেন্দ্রটি ভেঙে ফেলায় আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে থানায় জিডি
করেছি ।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এবিএম আ: হান্নান বলেন,প্রধান শিক্ষকের এ কাজটি করা ঠিক হয়নি । অপসারণ করতে
হলে সিস্টেমের বাইরে যাওয়া যাবে না ।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জিয়ারুল ইসলাম বলেন, জিড্ির তদন্ত চলছে, সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button