sliderস্থানীয়

সিংগাইরে কুদ্দুস হত্যা, ১৫ জনকে আসামি করে মামলা, দুই দারোগা ক্লোজ

সিরাজুল ইসলাম,সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) : মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার চান্দহর ইউনিয়নের সিরাজপুর এলাকায় ৩ প্রতিবন্ধী সন্তানের জনক আব্দুল কুদ্দুস হত্যার ঘটনায় ১৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

নিহত কুদ্দুসের স্ত্রী শিউলি বাদী হয়ে আবু কালামকে প্রধান আসামী করে রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রধান আসামী উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য। এছাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজকেও আসামী করা হয়েছে। এরা সকলেই সাবেক সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের সমর্থক ও ঘনিষ্টজন। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে শান্তিপুর (বাঘুলি) তদন্ত কেন্দ্রের ২ দারোগা এসআই আব্দুস সালাম মিয়া ও এএসআই আব্দুল আজিজকে ক্লোজ করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মানবেন্দ্র বালো জানান, এজাহারভুক্ত আসামী হারুন নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন, আলামত হিসেবে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা ও রক্তা মাখা জামা কাপড় উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে দু’গ্রুপের আধিপত্য বিস্তার ও জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দু’দফায় সংঘর্ষে কয়েকজন আহত হন। এদের মধ্যে আব্দুল কুদ্দুস (৫২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় পৃথক দু’টি মামলা হয়। নিহত কুদ্দুস উপজেলার চান্দহর ইউনিয়নের আটিপাড়া গ্রামের মৃত মিনাজ উদ্দিনের পুত্র। পেশায় তিনি একজন বাঁশ ও কাঠ ব্যবসায়ী ।

এদিকে, সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান ও রবিবার বিকেলে স্থানীয় সংসদ সদস্য দেওয়ান জাহিদ আহমেদ টুলু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। নিহতের পরিবারে বইছে শোকের মাতম।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button