sliderস্থানীয়

সাজেকে সেনাবাহিনীর অভিযানে বিপুল পরিমাণ অবৈধ কাঠ জব্দ

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি : রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক থানার ৮নং পাড়া এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪১৪ ঘনফুট অবৈধ বিভিন্ন জাতের কাঠ আটক করেছেন সেনাবাহিনী।
২১ জুলাই (বৃহস্পতিবার ) রাত ০৭টায় বাঘাইহাট জোন (৬ ইস্ট বেঙ্গল), জোন কমান্ডার লেঃকর্নেল মুনতাসির রহমান চৌধুরী, পিএসসি, এর নির্দেশে মাসালং আর্মি ক্যাম্পের ক্যাম্প কমান্ডার-ওয়ারেন্ট অফিসার মাসুক কাজী এর নেতৃত্বে এসব কাঠ জব্দ করা হয়।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও বন বিভাগের সূত্রে জানা যায়, সাজেক থানার ৮নং পাড়া এলাকায় রাতের আঁধারে পাচারের উদ্দেশ্যে কাঠগুলো আনা হলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অবৈধ বিভিন্ন প্রজাতির কাঠ আটক করেছেন সেনাবাহিনী।
কাঠ জব্দের সময় সেনাবাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে কাঠ পাচারকারীরা ঘটনা স্থান হতে পালিয়ে যায়। আটককৃত কাঠের বাজার মূল্য আনুমানিক ৮ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা হবে বলে জানা যায়।
কাঠ পাচার রোধের বিষয়ে কথা হলে বন বিভাগের দায়িত্বরত বাঘাইহাট রেঞ্জ কর্মকর্তা জনাব শেখ ফারুক আহম্মেদ বলেন-পার্বত্য এলাকার পরিস্থিতির কারণে আমরা একক ভাবে কাঠ পাচার রোধে অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হয় না।তথ্যের ভিক্তিতে প্রায় সময় আমরা সেনাবাহীর সাথে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে থাকি। ফলে প্রতিনিয়ত কাঠ পাচার রোধে যৌথবাহিনীর সাথে সমন্বয়ে আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে ।আটককৃত কাঠগুলো সাজেক থানা বাঘাইহাট রেঞ্জে হস্তান্তর করা হয়। এবং বন মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান।
বাঘাইহাট জোনের জোন কমান্ডার এর সাথে ফোনালাপে কথা বলে জানা যায় তিনি বলেন পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং দেশের বনজ সম্পদ রক্ষা ও অবৈধ কাঠ পাচার রোধের জন্য সেনাবাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি আরো বলেন আমাদের সকলকে মনে রাখতে হবে সবার উপরে দেশ। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের জনগণ এবং দেশের সম্পদ রক্ষার জন্য সেনাবাহিনী প্রতিনিয়ত কাজ করে আসছে এবং ভবিষ্যতেও এ কাজের ধারাবাহিতা অব্যাহত থাকবে।

Related Articles

Back to top button