sliderবিনোদন

সনু নিগমকে গান গাইতে দেওয়ায় বিমান ক্রু সাময়িক বরখাস্ত

ভারতের শীর্ষ সঙ্গীতশিল্পী সনু নিগম ভ্রমণ করছিলেন জেট এয়ারওেয়েসের একটি ফ্লাইটে যখন যাত্রীদের সঙ্গে বিমান কর্মীদের যোগাযোগের মাইক ব্যবহার করে তিনি যাত্রীদের গান শোনালে বিমান যাত্রীরা মহা উল্লসিত হয়ে ওঠেন।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে জানুয়ারির ৪ তারিখে যোধপুর থেকে মুম্বাইগামী জেট এয়ারওয়েসের ওই বিমান যাত্রায় যাত্রীরা সনু নিগমকে গান গাইতে অনুরোধ করলে তিনি তাদের অনুরোধ রাখেন এবং দুটি জনপ্রিয় ছায়াছবিতে তার গাওয়া দুটি হিট গান যাত্রীদের সামনে পরিবেশন করেন।
এর জন্য তাকে বিমান যাত্রীদের ঘোষণার জন্য যে মাইক সিস্টেম ব্যবহার করা হয় তা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়। আর এর ফলশ্রুতিতে প্রায় এক মাসের মাথায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়ে জেট কর্তৃপক্ষ ওই বিমানের ক্রুদের সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে।
বিমান কর্তৃপক্ষের বক্তব্য বিমানের ওই মাইক্রোফোন সিস্টেম যাত্রীদের নিরাপত্তামূলক তথ্য জানানোর জন্য ব্যবহার করা হয়। ওই পাবলিক অ্যাড্রেস সিস্টেম যাত্রীদের মনোরঞ্জনের জন্য নয়।
সনু নিগমের ওই গান গাওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোড়ন ফেলে এবং বহু মানুষ অনলাইনে ওই ভিডিও দেখেন।
বিমান কর্তৃপক্ষ সাসপেণ্ড হওয়া ওই বিমানকর্মীদের ”শোধরানোর জন্য প্রশিক্ষণ” দেবে বলে জানাচ্ছে।
সুন নিগম বলেছেন যাত্রীদের মধ্যে তার ভাষায় ”আনন্দ ছড়িয়ে দেবার” সুযোগ করে দেওয়ার অপরাধে বিমান কর্মীদের শাস্তি পেতে হয়েছে।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সনু নিগমকে উদ্ধৃত করে বলছে তিনি এটাকে ”সাধারণ বিবেচনার অভাব” বলে অভিহিত করে বলেছেন যখন তিনি গান গাইছিলেন তখন কোনো নিরাপত্তামূলক ঘোষণা দেওয়া হচ্ছিল না বা দেওয়ার প্রয়োজনও ছিল না। তিনি বলেছেন তার মতে ”এটা আসলে অসহিষ্ণুতা।”
টাইমস অফ ইন্ডিয়া খবর দিচ্ছে সনু নিগম বলেছেন তিনি গান গাইতে শুরু করলে যাত্রীরাও তার সঙ্গে গলা মেলান এবং সনু নিগম বলেন ”আরে ওয়া – আপনারাও দেখি গাইছেন- সবাই এখানে গান গাইতে পারেন!”
ভারতের বেসামরিক বিমান চলাচল প্রতিমন্ত্রী মহেশ শর্মা বলেছেন বিমানের মাইক সিস্টেম বিমানের অনুমোদিত কর্মী এবং ক্যাপ্টেনই শুধু ব্যবহার করতে পারেন। ”জেট যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়ায় আমি সন্তুষ্ট।” বিবিসি

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button