sliderস্থানীয়

লালপুরে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে এনজিও কর্মকর্তারা উধাও

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের লালপুরে ‘গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফর এডুকেশন’ নামে এক ‘এনজিও’ লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছেন কর্মকর্তরা। হতদরিদ্র শতশত গ্রাহককে মোটা অংকের টাকা ঋণ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে জামানত হিসেবে এসব টাকা সংগ্রহ করা হয়।

প্রতারিত সদস্যরা জানান, গত এক সপ্তাহ আগে প্রতরক চক্রটি ‘গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফর এডুকেশন’ নামে একটি বিদেশি সংস্থার কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে সরকার অনুমোদিত এনজিও দাবি করে উপজেলার বুধিরামপুর এলাকার মোজের প্রামাণিকের মেয়ে শরিফা খাতুনের বাড়ি ভাড়া নিয়ে এনজিওটির নাটোর জোনাল অফিস খুলে বসেন। সেই অফিস থেকে পদ্মার চরাঞ্চল, আশ্রয়ণ প্রকল্প ও তার আশেপাশের এলাকায় মোটা অংকের টাকা ঋন দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে জামানত সংঘ্রহ শুরু কওে প্রতারক চক্র। গত দুই দিনে প্রায় ২ শত হতদরিদ্র মানুষকে ঋণ দেওয়া কথা বলে জামানত সংগ্রহ করে তাদের থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে মঙ্গলবার দুপুর থেকে লাপাত্তা হয়ে যান। পরে তালাবন্ধ এনজিওর অফিসে ভুক্তভোগী গ্রাহকরা ভীড় করে পাওনা টাকা চেয়ে আন্দোলন শুরু করেন।

রসুলপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দা আলতাফ হোসেনের স্ত্রী জানান, আশ্রয়ণ প্রকল্পে বিদ্যুৎ না থাকায় সৌর বিদ্যুৎ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ৯ হাজার টাকা নিয়েছেন। এছাড়া ওই আশ্রায়ণ প্রকল্পের হতদরিদ্র আরো কয়েকজনের থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন চক্রটি।

আরেক ভুক্তভোগী বিলমাড়িয়ার হামিদুল ইসলাম জানান, তার বাড়িতে কেন্দ্র গঠন করে ২ বছর মেয়াদে ২ লাখ টাকা করে ঋণ দেওয়ার কথা বলে প্রত্যেকের থেকে ২০হাজার করে টাকা জামানত নিয়েছেন। পরে অফিসে ঋণ নিতে এসে দেখেন অফিসে তালা দেওয়া এবং ওইসব ভুয়া কর্মকর্তাদের ফোন বন্ধ। এসব প্রতারক চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

এবিষয়ে বাড়ির মালিক শরিফা খাতুন জানান, গত এক সপ্তাহ আগে ১২ হাজার টাকায় ওই এনজিওটিকে বাড়িটি ভাড়া দিয়েছিলেন তিনি। দুপুর থেকে রুমে তালা দিয়ে এনজিও টির কর্মকর্তা পালিয়েছে। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। তাদের নাাম পরিচয় সঠিক আছে কিনা তা তিনি জানাতে পারেননি।

এ বিষয়ে লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহা. মেনোয়ারুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীমা সুলতানা বলেন, বিষয়টি তদন্ত কওে দায়ি ব্যক্তিদেও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button