sliderস্থানীয়

রংপুর চিড়িয়াখানায় জলহস্তির প্রথম বাচ্চা প্রসব

রংপুর ব্যুরোঃ রংপুর চিড়িয়াখানায় জলহস্তি নুপুর ও কালাপাহাড় জুটির প্রথমবার বাচ্চা প্রসব করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাচ্চাটির জন্ম হয়। জলহস্তির বাচ্চাটি দেখতে চিড়িয়াখানায় অনেকেই ভিড় জমিয়েছেন। নুপুর ৮ মাস আগে গর্ভধারণ করেছিল। বর্তমানে নুপুরের সঙ্গী লিয়ন ওরফে কালোপাহাড়কে আলদা করে রাখা হয়েছে।
রংপুর চিড়িয়াখানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা.শাহাদৎ হোসেন জানান, জলহস্তি নুপুর ও কালোপাহাড়কে ২ হাজার সালের ১৭ আগস্ট জুটি হিসাবে ঢাকা চিড়িয়াখানা থেকে নিয়ে আসা হয়। এর আগে একটি জলহস্তি বয়স্ক জনিত কারণে মারা যায়। কলোপাহাড়ের জন্ম ১৪ সালের ৮ ডিসেম্বর ও নুপুরের ১৭ সালের ১১ জুলাই। তাদের আদিনিবাস কেনিয়ায়। স্ত্রী জলহস্তি ৪ থেকে ৫ বছর ও পুরুষ ৭ থেকে ৮ বছরের মধ্যে বয়প্রাপ্ত হয়ে সন্তান জন্ম দিতে সক্ষম হয়। ১৯০ থেকে ২৪০ দিনের মধ্যে গর্ভধারণের পর পানিতেই একটি বাচ্চা প্রসব করে থাকে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা বেজে ১৫ মিনিটে জলহস্তি নুপুর বাচ্চটি প্রসব করে। কোন লিঙ্গের বাচ্চাটি তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেননা সেখানকার কর্তৃপক্ষ। নুপুরের বাচ্চাকে দেখতে চিড়িয়াখানায় উৎসুক দর্শনার্থীরা ভিড় জমাচ্ছেন।
অন্যদিকে, চিড়িয়াখানায় এক জোড়া ঘোড়া থেকে এখন ৪টি ও গাধার জুটি থেকে ৬টিতে দাঁড়িয়েছে। এখন ৩টি গাধা গর্ভধারণ করেছে। আরো এক জোড়া বাঘ চট্টগ্রাম থেকে রংপুর চিড়িয়াখানায় আসার কথা জানালেন চিড়িয়াখানার কর্মকর্তা । রংপুর চিড়িয়াখানায় বর্তমানে ৩১টি প্রজাতির ২৫১টি প্রাণি রয়েছে।

Related Articles

Back to top button