sliderমহানগরশিরোনাম

মেট্রোরেলে থাকবেন ৬ নারী চালক, উদ্বোধনে চালাবেন মরিয়ম আফিজা

প্রথম যাত্রী হবেন প্রধানমন্ত্রী

আগামীকাল বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দেশের প্রথম মেট্রোরেল। এ যাত্রায় সংযুক্ত রয়েছেন ছয় নারী চালক। তাদের মধ্যে মরিয়ম আফিজা উদ্বোধনী দিনই চালকের আসনে বসার যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করেছেন।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এম এ এন সিদ্দিক ইউএনবিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, মেট্রোরেল উদ্বোধনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এছাড়া মেট্রোরেল চালাতে পর্যাপ্ত চালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। যাদের মধ্যে ছয়জন নারী চালক রয়েছে।

তিনি আরো জানান, দক্ষ চালক হিসেবে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। প্রত্যকটি ট্রেন যাতে দক্ষতার সাথে চালাতে পারে, আমরা তাদের সেভাবে প্রশিক্ষণ দিচ্ছি।

নারী চালক বিষয়ে তিনি বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কেমিস্ট্রি অ্যান্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে স্নাতকোত্তর শেষ করে মেট্রোরেলের চালক হিসেবে নিয়োগ পান মরিয়ম আফিজা।

২০২১ সালের ২ নভেম্বর চালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনি।

তিনি জানান, মরিয়ম টানা এক বছর প্রশিক্ষণ নিয়ে পাকা চালক হিসেবে নিজেকে তৈরি করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছেন। ইতোমধ্যে মরিয়ম আফিজা চট্টগ্রামের হালিশহরে রেলওয়ে ট্রেনিং একাডেমি থেকে দুই মাস প্রশিক্ষণ নিয়ে ঢাকায় ফিরে আবারো আরো চার মাস প্রশিক্ষণ নেন।

এম এ এন সিদ্দিক আরো জানান, মরিয়ম বর্তমানে উত্তরা দিয়াবাড়ি মেট্রোরেলের বিপরীতে কারিগরি প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। সেখানে মেট্রোরেলের নির্মাতাপ্রতিষ্ঠান জাপানের মিতসুবিশি কাওয়াসাফি কোম্পানি বিশেষজ্ঞরা ট্রেন পরিচালনা ও কারিগরি ও প্রায়োগিক প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন।

অন্যদিকে, যাত্রীদের মেট্রোরেল স্টেশনে আসা-যাওয়ার জন্য থাকবে বিআরটিসি’র ৫০টি দ্বিতল বাস। ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) সাথে বিআরটিসির চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে সম্প্রতি।

এ বিষয়ে ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন সিদ্দিক ইউএনবিকে জানান, দিয়াবাড়ি এলাকায় স্টেশনে উত্তরা ও আশপাশের বাসিন্দাদের মেট্রোরেলে চলাচল করতে হলে কিছুটা সময় নিয়ে যেতে হবে।

তিনি আরো জানান, উত্তরা ও আশেপাশের এলাকায় যাত্রীদের দিয়াবাড়ি মেট্রোরেল স্টেশনে আনা-নেয়া করবে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের (বিআরটিসি) বাস। দিয়াবাড়ি থেকে উত্তরা হাউজ বিল্ডিং বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত আসা যাওয়া করবে বিআরটিসি বাস। তেমনি একইভাবে আগারগাঁওয়ের যাত্রীদের পরিবহনের জন্য মতিঝিল থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত বাস সেবা দেবে বিআরটিসি।

এছাড়া যাত্রীদের জন্য দুটি রোড করেছে বিআরটিসি। একটি রোড আগারগাঁও থেকে ফার্মগেট-কারওয়ানবাজার, শাহবাগ, গুলিস্তান হয়ে মতিঝিল যাবে। একইভাবে মতিঝিল থেকে গুলিস্তান, শাহবাগ, কারওয়ানবাজার, ফার্মগেট হয়ে আগারগাঁও পর্যন্ত আসা যাবে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইউএনবিকে জানান, ২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন মেট্রোরেল। পরের দিন ২৯ ডিসেম্বর থেকে সাধারণ যাত্রীরা চলাচল করতে পারবে এ মেট্রোরেলে।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিক প্রথম দিকে মেট্রোরেল সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা চলবে। উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশে চলাচলের পথে কোথাও থামবে না ট্রেনটি, বিরতিহীনভাবে চলবে।

কারণ মানুষকে অভ্যস্ত করার জন্য প্রথমদিকে বেশি যাত্রী নেয়া হবে না। মানুষ অভ্যস্ত হয়ে গেলে আস্তে আস্তে তিন মাসের ভেতরে আমরা পূর্ণভাবে চালাতে পারবো।

ভাড়া নিয়ে আলোচনা-
মেট্রোরেল সর্বনিম্ন ভাড়া ২০ টাকা। উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও স্টেশনের ভাড়া হবে ৬০ টাকা। উত্তরা উত্তর থেকে উত্তরা স্টেশন (মধ্য) ও উত্তরা-দক্ষিণ স্টেশনের ভাড়া ২০ টাকা।

এছাড়া প্রথম স্টেশন উত্তরা উত্তর থেকে পল্লবী ও মিরপুর ১১ স্টেশনের ভাড়া ৩০ টাকা, মিরপুর ১০ ও কাজীপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৪০ টাকা এবং শেওড়াপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডিএমটিসিএল সূত্রে জানা যায়, র‌্যাপিড পাস নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

এছাড়া অনলাইনে ফরম থাকবে।

রেজিস্ট্রেশন করে স্টেশন থেকে কার্ড নিতে হবে। কার্ডের জন্য ২০০ টাকা লাগবে। পরে কার্ডে ২০০ টাকা থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত রিচার্জ করা যাবে।

সূত্র : ইউএনবি

Related Articles

Back to top button