sliderরাজনীতিশিরোনাম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভিজিটিং লিডারশিপের জন্য মনোনীত হলেন এবি পার্টির ব্যারিস্টার নাসরীন মিলি

পতাকা ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ভিজিটিং লিডারশিপ প্রোগ্রাম (IVLP) এ অংশগ্রহণের জন্য এবছর মনোনীত হয়েছেন আমার বাংলাদেশ পার্টি ‘এবি পার্টি’র সহকারী সদস্যসচিব ও উইমেন উইং এর কে-অর্ডিনেটর ব্যারিস্টার নাসরীন সুলতানা মিলি। IVLP হচ্ছে ইউএসএ’র স্টেট ডিপার্টমেন্টের সম্পূর্ণ অর্থায়নে একটি প্রিমিয়ার স্কলারশিপ প্রোগ্রাম, যাতে অংশগ্রহণকারীদেরকে সারা বিশ্ব থেকে নির্বাচন করা হয়। এ বছর বিভিন্ন অঞ্চলের আরও ৫ জন রাজনৈতিক ও মানবাধিকার কর্মীদের সাথে ব্যারিস্টার মিলি বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন।
IVLP প্রধানত: বিভিন্ন ক্ষেত্রের নেতৃত্ব বের করে আনার লক্ষ্যে পরিচালিত একটি কর্মসূচি, যারা তাদের নিজ নিজ সমাজের জন্য একটি উল্লেখযোগ্য অবদান ও ভূমিকা রাখেন। এ কর্মসূচিতে সাধারণত: রাজনৈতিক নেতা, নারী উদ্যোক্তা, মানবাধিকার কর্মী এবং যারা নিজ সম্প্রদায়ের প্রান্তিক অংশের জন্য কাজ করে তাদের প্রাধান্য দেয়া হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্য এই তরুণ উঠতি নেতাদের সাথে মত বিনিময় করা এবং দীর্ঘস্থায়ী সংযোগ স্থাপন করা।
ব্যারিস্টার নাসরীন সুলতানা মিলিকে রাজনৈতিক ও মানবাধিকার কর্মী ক্যাটাগরিতে নির্বাচন করা হয়েছে। এবি পার্টির কূটনৈতিক টিমের সদস্য, একজন নারী আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মী হিসেবে মিলি ইতোমধ্যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছেন।
১৭ জানুয়ারি তিন সপ্তাহের এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে ব্যারিস্টার মিলি যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। তিনি সেখানে মার্কিন নির্বাচনী প্রক্রিয়া এবং তাদের প্রাথমিক নির্বাচন সংক্রান্ত অভিজ্ঞতা পর্যবেক্ষণ করবেন।
যুক্তরাষ্ট্রের এই IVLP প্রবর্তনের পর থেকে এতে অংশগ্রহণকারী প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে রয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ইন্দিরা গান্ধী, টনি ব্লেয়ার, গর্ডন ব্রাউন, ডাঃ মাহাথির মুহাম্মদ সহ বিশ্বের অন্যান্য আরও প্রায় 500 জন রাষ্ট্রপ্রধান। তারা মনোনয়ন পেয়েছিলেন এমন একটা সময় যখন তারা তরুণ এবং কেবল উঠতি নেতা ছিলেন। এবি পার্টির পক্ষ থেকে ব্যারিস্টার নাসরীন সুলতানা মিলি’র এই সাফল্যে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়। দেশবাসীর কাছে তাঁর সাফল্য কামনায় দোয়ার আবেদন জানানো হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button