sliderআন্তর্জাতিক সংবাদশিরোনাম

‘মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র এবং রাডার ব্যবস্থা সৌদিতে চালানো হামলা ঠেকাতে ব্যর্থ’

মার্কিন ডেস্ট্রয়ার বহর, ক্ষেপণাস্ত্র, এবং রাডার ব্যবস্থা সৌদি আরবকে প্রতিরক্ষা দিতে শোচনীয় ভাবে ব্যর্থ হচ্ছে। এ সব ক্ষেপণাস্ত্র, ডেস্ট্রয়ার এবং রাডার বিক্রির সময়ে আমেরিকার যে সব গুণাগুণের কথা ফলাও করে প্রচার করেছিল যুদ্ধের বাস্তবতার মুখে তার সবই শেষ পর্যন্ত ফাঁকা বুলি হিসেবে প্রমাণিত হচ্ছে। রুশ সামরিক বাহিনীর উচ্চ পদস্থ সূত্র থেকে এটি জানানো হয়েছে।
ব্যয়বহুল এবং অত্যাধুনিক হিসেবে পরিচিত অস্ত্রের এ ব্যাপক সম্ভার সৌদি তেল-ক্ষেত্রগুলোকে চালকহীন বিমান বা ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র হামলা থেকে মোটেও রক্ষা করতে পারছে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কথিত অত্যাধুনিক অস্ত্র এবং রাডার ব্যবস্থার কল্যাণে সৌদি আরব শক্তিশালী বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে বলে দীর্ঘদিন ধরে প্রচার করা হয়েছে। এ সব ব্যবস্থা সৌদি আরবকে দিনরাত রাডারের নিরাপদ পর্দায় ঢেকে রাখছে বলেও দাবি করা হয়েছে।
বর্তমানে সৌদি আরবে মোতায়েন রয়েছে ৮৮টি প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা। এর মধ্যে ৫২টিই হলো পিএসি-৩ নামে পরিচিত প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্রের সর্বশেষ সংস্করণ। এ সব ক্ষেপণাস্ত্র সৌদি দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে রেখেছে বলে জোর দাবি করা হয়।
এ ছাড়া, পারস্য উপসাগরের সৌদি উপকূলে টহল দিচ্ছে গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্রবাহী তিনটি ডেস্ট্রয়ার। এগুলোর প্রতিটিতেই বসানো আছে ১০০এসএম-২ ক্ষেপণাস্ত্র।
কিন্তু বাস্তবে এ সব অস্ত্র এবং রণসজ্জা নেহাতই কাগুজে বাঘে পরিণত হয়েছে । এ সব অস্ত্র এবং বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দিয়ে আকাশ পথে চালানো ব্যাপক হামলা প্রতিহত করা সৌদি আরবের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছে রুশ সূত্র।
আকাশপথে চালানো আবকাইক এবং খুবাইস তেলক্ষেত্রে ব্যাপক হামলা ঠেকাতে সৌদি ব্যর্থতার কারণ খুঁজে বের করতে আন্তর্জাতিক মাধ্যম হিমসিম খাচ্ছে। ঠিক সে সময়ে রুশ সামরিক সূত্র থেকে এ বক্তব্য দেয়া হলো।
পার্সটুডে

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button