sliderস্থানীয়

মানিকগঞ্জে বিএনসিসি ক্লাবের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

আব্দুর রাজ্জাক, মানিকগঞ্জ : বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর বিএনসিসি ক্লাবের মানিকগঞ্জ জেলার সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার মানিকগঞ্জের বেউথায় কালিগংঙ্গা নদীর পাড়ে একটা রেস্টুরেন্টে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কৌড়ি এমএ রউফ কলেজের পি ইউ ও মোঃ আরশেদ আলীর সভাপতিতে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে লেঃ কর্নেল এস এম সালাহউদ্দিন।
সাবেক সিইউও সফিকুল ইসলামের স ালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মেজর সোমেন কান্তি বড়ুয়া। এছাড়াও অতিথি হিসাবে সাবেক ক্যাডেটদের মধ্য থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে দায়িত্ব পালন করা ক্যাডেটগন বক্তব্য রাখেন। এরা হলেন, ক্লাব সেক্রেটারি আ.ফ.ম.গাজী, সমন্বয়ক বিএনসিসি ক্লাব মোঃ নাজমুল হুদা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা রেশমিন নুসরাত শান্তা, সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ পিইউও জাফর ইকবাল, সাবেক সিইউও সমাজ সেবক এ.কে.এম সাইফুল ইসলাম শহীদ, সাবেক সিইউও মানিকগঞ্জ জজকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবি আশরাফ উদ্দিন আহাম্মদ, মেটলাইফ বাংলাদেশের ব্র্য ম্যানেজার ও মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ শাহানুর ইসলাম, সাবেক সিইউও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ আরিফ মোল্লা,সাবেক সিইউও পোড়রা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট সমাজ সেবক কাজী মাসুকুর রহমান মাসুক, সাবেক সিইউও সাংবাদিক মোঃ শফি আলম কৌড়ি এম এ রউফ ডিগ্রি কলেজের সাবেক সিইউও মোঃ আলামিন, জেনিথ স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপ্যাল সাবেক কর্পোরাল মিজানুর রজমান সাবেক সার্জেন্ট নাহিদ মনির, সাবেক সার্জেন্ট মোঃ নাসির, সাবেক সার্জেন্ট সুরাইয়া তানজিদা রিমন, কর্পোরাল শফিকুর ইসলাম লাকেন, সার্জেন্ট বুলু, কর্পোরাল শ্রাবনী
আক্তার, সাবেক সার্জেন্ট আতিয়া, সাবেক ক্যাডেট আলভী, সহ প্রাক্তন ক্যাডেটগণ।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে মানিকগঞ্জ পৌর সভার স্থানীয় কাউন্সিলর আবু মোঃ নাহিদ বক্তব্য রাখেন। সমন্বয় সভায় সাবেক ও বর্তমান ক্যাডেটসহ প্রায় শতাধিত ক্যাডেট যোগদান করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে লেঃ কর্নেল এস এম সালাহউদ্দিন বলেন, আমরা যারা মানবতার জন্য করতে চাই । দেশ প্রেমকে বুকে ধারন করে আমরা বিএনসিসির ক্যাডেট হিসাবে জীবন শুরু করেছিলাম। আমরা শৃংখলাবদ্ধ জীবন যাপন করে ছাত্র জীবন শেষেও যার যার ক্ষেত্রে কর্মজীবনেও সফল হয়েছি। আমরা আমাদের সকল সাবেক ক্যাডেটদের আবার একটা প্লাটর্ফমে আনার জন্যে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা সবাই একসাথে থাকলে নিজেরাও উপকৃত হবো এবং দেশ ও দেশের মানুষের জন্যেও কাজ করতে
পারবো।
তিনি বলেন, দুইজন মন্ত্রী তাদের বক্তৃতায় স্পষ্ট করে বলেছেন এখন পর্যন্ত কোন রেকর্ড নাই বিএনসিসি কোন ক্যাডেট সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সম্পৃক্ত। দেশের যে কোন প্রয়োজনে আমরা জীবন বাজি রেখে কাজ করতে প্রস্তুত।
সৎ, দক্ষ, দেশপ্রেমিক, যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি করার মহান উদ্দেশ্যে বিএনসিসি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল এবং একাজ অব্যাহত থাকবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মেজর সোমেন কান্তি বড়ুয়া বলেন, সকল দূর্যোগে বিএনসিসির ক্যাডেটরা প্রমান করেছে যে তারা জীবনবাজি রেখে দেশের মানুষের জন্যে কাজ করে। এখন আমার এক সাথে আরো ভালো কাজগুলো এগিয়ে নিয়ে যাবো।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button