sliderস্থানীয়

মানিকগঞ্জে আইডিইবির সংবাদ সম্মেলন

খাব্বাব হোসেন ত্বহা, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার মর্যাদা বৃদ্ধি ও পেশাগত সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহনের আহ্বান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে ইন্সটিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) এর মানিকগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দরা। রবিবার (১২ মে) দুপুরে মানিকগঞ্জের ন্যাশনাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে আইডিইবি মানিকগঞ্জ জেলা শাখার সদস্যরা এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সকে বিএসসি (পাশ) সমমান মর্যাদা প্রদানের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে এবং ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ার ও তাদের সংগঠন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)’র পক্ষ থেকে উক্ত উদ্যোগের বিরুদ্ধে যে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখানো হচ্ছে তার প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আইডিইবি নেতৃবৃন্দ।

এসময় ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ার ও তাদের সংগঠন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি) এর কার্যক্রমকে অনভিপ্রেত ও অগ্রহনযোগ্য আখ্যা করে এ ধরনের জাতি বিনাশী কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানায় আইডিইবি নেতৃবৃন্দ।

আইডিইবি নেতৃবৃন্দ বলেন, “ডেস্ক ও ফিল্ড ইঞ্জিনিয়ারিং’য়ে বিভক্ত দেশের প্রকৌশল কর্মাঙ্গনের সুষ্ঠু ধারাবাহিকতা বজায় রাখার স্বার্থে রাষ্ট্রীয় ব্যাপক অর্থে শিক্ষিত ডিগ্রি প্রকৌশলীদের প্রকৌশল গবেষনা, উদ্ভাবনী ও পরিকল্পনায় মনোযোগ বাড়াতে হবে। পাশাপাশি ডেস্ক ইঞ্জিনিয়ারিং’য়ে নিয়োজিত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের দক্ষতা উন্নয়নে এই শিক্ষার আধুনিকায়ন করা প্রয়োজন।”

সংবাদ সম্মেলন থেকে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষাকে জনপ্রিয় করার স্বার্থে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের মান ও মর্যাদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিএসসি (পাশ) কোর্সের সমমান মর্যাদা প্রদানে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগ অবিলম্বে বাস্তবায়ন, জাতীয় মেধার অপচয় রোধ ও প্রশাসনে শ্রেনী স্বার্থ দ্বন্দ নিরসনে এবং রাষ্টের অর্থ অপচয় রোধে প্রশাসনিক ক্যাডারে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং সনদধারীদের প্রবেশ রোধে পেশা পরিবর্তনের আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত রাষ্ট্রীয় আইনি কাঠামোর মাধ্যমে বন্ধ করা, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের পদোন্নতির কোটা ৫০% এ উন্নতীকরন, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে অন্যান্য পেশাজীবীদের ন্যায় একটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট এবং পরিকল্পনা ও নকশা বিভাগে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার উপ-সহকারী প্রকৌশলীদেরকে সহকারী প্রকৌশলীদের ন্যায় ৩টি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান এবং ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং উত্তীর্নদের ক্রেডিট ওয়েভার দিয়ে ২ বছরে ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করার সুযোগ প্রদানে ৪ দফা দাবী জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন মানিকগঞ্জ জেলা আইডিইবি’র সাধারন সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ ফারুক হোসেন। এসময় অন্যান্যদের মাঝে জেলা আইডিইবি’র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আনোয়ার হক, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ রোকনুজ্জামান, দপ্তর সম্পাদক মোঃ কবির হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ রতন মিয়া, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ কামরুল হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ফারুক হোসেনসহ অন্যান্য সদস্য প্রকৌশলী ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২ মার্চ ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে সংগঠনটির জেলা ও সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন প্রতিনিধি সম্মেলন ও বর্ধিত সভায় শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি (পাস) মর্যাদা দেওয়ার পক্ষে মত জানান। তার ধারাবাহিকতায় ১৫ এপ্রিল কমিটি গঠন করার পর থেকে অন্যান্য প্রকৌশলীদের মধ্যে শুরু হয় তুমুল আলোচনা-সমালোচনা।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button