sliderস্থানীয়

মাদ্রাসার খাদেমকে চোর আখ্যা দিয় ইউপি সদস্যের মারপিট

স্বরূপকাঠি প্রতিনিধি : পিরোজপুরে সোহাগদল ইউনিয়নে মাদ্রাসার খাদেমকে চোর আখ্যা দিয় মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোহাগদল ইউনিয়ন পরিষদে বসে ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার খোকনের মারপিটের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে ।মেম্বারকে নিয়ে স্বরূপকাঠিতে নিন্দার ঝড় ওঠে। ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার কামরুল হোসেন (খোকন) মাদ্রাসার খাদেম পরিচয় দেয়া জহিরুল ইসলামকে চোর সন্দেহে রশি দিয়ে হাত বেঁধে ক্রিকেট খেলার স্টাম দিয়ে বেধম মারপিট করতে দেখা যায়।
তথসুত্রে জানাযায় মসজিদের মালামাল (বিদ্যুতের ১টি সকেট) চুরি করার অভিযোগে ওয়ার্ড মেম্বার আইন হাতে তুলে নিয়ে সন্ত্রাসী স্টাইলে ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা খাদেমকে বেধম মারপিট করে। ওখানে উপস্থিত উৎসুক জনতা ভিডিও করে মুহুর্তের মধ্যে ভাইরাল করে দেয়।পরে মেম্বার আহত অবস্থায় জহিরুল ইসলাম কে থানায় সোপর্দ করে। ঝালাকাঠি নওয়াপাড়ার নুরুল ইসলাম এর ছেলে জাহিরুল ইসলাম সে হদুয়া মাদ্রাসার খাদেম।
এ বিষয় ওয়ার্ড মেম্বার খোকনের কাছে জহিরুল ইসলামকে(খাদেম) মারপিট করার কারন এবং একজন জন প্রতিনিধি হিসেবে তিনি আইন হাতে তুলে পারেন কিনা? জানতে চাইলে সে বলে, আমি সাংবাদিকের কাছে এর জবাব দিতে বাধ্য নই। আমি একজন জন প্রতিনিধি ইজ্জত দিয়ে কথা বলবেন বলেই লাইন কেটে দেয়।
নেছারাবাদ থানা অফিসার ইনচার্জ আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান,জহিরুল ইসলামকে চুরির অপরাতে ৩৮০ ধারায় মামলা হয়েছে এবং আজ সকালে তাকে পিরোজপুর কোর্টো পাঠানো হয়েছে।
নেছারাবাদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোশারেফ হোসেন বলেন,সুধু জনপ্রতিনিধি না কেন ব্যাক্তি আইন হাতে তুলে নিতে পারবেনা। যে অপরাধী তাকে আইনের হাতে তুলে দেয়া হোক। কেউ যদি তাকে মারপিটের অভিযোগ করে পুলিশ প্রশাসনকে বলে দেয়া আছে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related Articles

Back to top button