sliderআইন আদালতশিরোনাম

ব্যারিষ্টার কাজল ও ওসমানের গ্রেফতারে এবি পার্টি লইয়ার্সের নিন্দা

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং সাবেক কার্যকরী সদস্য ব্যারিস্টার ওসমান চৌধুরীর গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে এবি পার্টি লইয়ার্স।
এক যুক্ত বিবৃতিতে এবি পার্টি লইয়ার্সের আহবায়ক অ্যাড. তাজুল ইসলাম এবং সদস্যসচিব ব্যরিস্টার যুবায়ের আহমেদ ভূঁইয়া বলেন, ডামি ভোটের সরকার ক্রমেই অসহিষ্ণু হয়ে উঠছে। সুপ্রিমকোর্ট বারের নির্বাচনে কারচুপি এবং বিরোধী দলীয় আইনজীবী নেতৃবৃন্দের উপর দমন-নিপীড়ন চালানোর ঘটনায় তাদের তস্কর চরিত্র আরেক দফা প্রমাণিত হয়েছে।
চলতি সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামি লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের দুপক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে মারামারির ঘটনায় সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং ব্যারিস্টার ওসমান চৌধুরীকে হয়রানিমূলক মামলায় আসামী করে গ্রেফতার করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের বিতর্কিত ভূমিকা, আইনজীবীদের উপর হামলা এবং এই গ্রেফতারের ঘটনায় আইনজীবী সমাজের পেশাগত মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত হয়েছে, আদালত প্রাঙ্গণে হিংসা চর্চার নজির স্থাপিত হয়েছে।

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনের কদিন আগে অনুষ্ঠিত এ বছরের ঢাকা বারের আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে একইভাবে ব্যাপক কারচুপির ঘটনা ঘটেছে, ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশনে নীল প্যানেলের সদস্যদের মারধর করা হয়েছে। এমনকি ভোটারদের ভয় দেখিয়ে সাদা প্যানেলের প্রার্থীদের ভোট দিতে বাধ্য করা হয়েছে। ভোট ডাকাতির মাধ্যমে সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় ঘোষণা করা হয়ছে৷ আওয়ামি লীগের শ্রেণি চরিত্র অনুযায়ী আসন্ন বার কাউন্সিল নির্বাচনও সুষ্ঠু হবার কোন সম্ভবনা নেই৷ নির্বাচন নামের ব্যবস্থাটি ফ্যাসিবাদী সরকারে কাছে জলাতঙ্ক রুপে দেখা দিয়েছে। এই ডামি সরকারের আমলে সকল সাংবিধানিক, সরকারি, আধা সরকারি বা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান ধ্বংস হওয়া ব্যতিত সংস্কার বা পুনর্গঠনের কোন সম্ভাবনা নেই। প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে জড়িত পেশাজীবিদের মর্যাদাহানির এমন কোন নজির নেই যা এই ফ্যাসিবাদী শক্তি স্থাপন করেনি। এবিপি লইয়ার্স আইনজীবী সহ অন্যান্য পেশাজীবিদের পেশার মর্যাদা রক্ষায় দেশপ্রেমিক নাগরিকদের সোচ্চার ভূমিকার প্রত্যাশা করছে। সম্মিলিত প্রতিবাদ ব্যতীত এই মাৎস্যন্যায় থেকে মুক্তির কোন উপায় নেই।
নেতৃবৃন্দ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মারামারি ও আওয়ামী সমর্থিত প্যানেল কর্তৃক ভোট কারচুপির ঘটনায় ব্যরিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং ওসমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার পূর্বক তাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছে ।
খবর বিজ্ঞপ্তির।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button