sliderআবহাওয়াশিরোনাম

বন্যা : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১৯, বিভিন্ন রোগে মোট আক্রান্ত ১৮৯৫৮ জন

দেশের অধিকাংশ জায়গায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি অব্যাহত থাকলেও শুক্রবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় মৌলভীবাজার জেলায় আরেকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বন্যায় মোট প্রাণহানির সংখ্যা ১১৯ জনে দাঁড়িয়েছে।
ওই ব্যক্তি বন্যার পানিতে ডুবে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।
বিবৃতিতে বলা হয়, ১৭ মে থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত সারাদেশে বন্যাজনিত বিভিন্ন রোগে মোট আক্রান্ত হয়েছে ১৮ হাজার ৯৫৮ জন এবং ১১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ৬১৬ জন এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে। আরটিআই (চোখের) রোগে আক্রান্ত ৮৯০ জন। বজ্রপাতের শিকার হয়েছেন ১৫ জন এবং ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সাপের দংশনের শিকার হয়েছেন ২১ জন এবং দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও পানিতে ডুবে ৯২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
একইসময়ে চর্ম রোগে আক্রান্ত এক হাজার দুই হাজার ৮৮ জন, চোখের প্রদাহজনিত রোগে ৩৩০ এবং নানাভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন ৪৭৯ জন। এ ছাড়া অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৪৮৭ জন এবং তাদের মধ্যে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।
মোট মৃতদের মধ্যে বন্যার পানিতে ডুবে ৯২ জন, বজ্রপাতে ১৫ জন, সাপের কামড়ে দু’জন, ডায়রিয়ায় একজন এবং অন্যান্য কারণে ৯ জন মারা গেছেন।
নিহতদের মধ্যে সিলেটে ৬৫ জন, ময়মনসিংহে ৪১ জন, রংপুরে ১২ জন এবং ঢাকা বিভাগে একজন মারা গেছেন।
বন্যাকবলিত ৭০টি উপজেলার মধ্যে সিলেট বিভাগে ৩৩টি, রংপুর বিভাগে ১৬টি, ময়মনসিংহ বিভাগে ২০টি এবং চট্টগ্রাম বিভাগে একটি উপজেলা রয়েছে।
সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা ও কুড়িগ্রাম সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জেলা যেখানে যথাক্রমে ১৩, ১১, ১০ ও ৯টি উপজেলা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
সূত্র : ইউএনবি

Related Articles

Back to top button