sliderস্থানীয়

প্রেমিকার বাবার পিটুনিতে প্রেমিকের মৃত্যু

সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) সংবাদদাতা : মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় প্রেমিকার সাথে পালিয়ে যাওয়ায় প্রেমিকার বাবার বেধড়ক পিটুনিতে আহত সোহাগ আহমেদ (১৭) মারা গেছে। মঙ্গলবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সে মারা যায়।
নিহত সোহাগ আহমেদ উপজেলার নতুন ভোঁয়া এলাকার আখের আলীর ছেলে। সে তাঁত শ্রমিকের কাজ করতো।
অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান হাবু দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোহাগের সাথে প্রেমের সম্পর্ক জড়িয়ে পড়ে একই এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান হাবুর নবম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ের সাথে। মেয়ের চেয়ে ছেলের পরিবার আর্থিকভাবে অসচ্ছল হওয়ায় মেয়ের বাবা ও ভাই বিষয়টি মেনে নেননি। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রেমিকার বাবা ঘরে আটক করে বেধড়ক মারপিট করে।
পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। গত শনিবার হঠাৎ সোহাগ বেশি অসুস্থ হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার ভোরে সোহাগ মারা যায়।
সোহাগের মামা ইয়াকুব আলী বলেন, আমার ভাগিনাকে বাড়িতে গিয়ে তারা মারধর করে হত্যা করেছে। মারপিটের কারণে সোহাগ অসুস্থ হয়ে মারা গেছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মোশারফ হোসেন শামীম বলেন, সঠিক তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সাথে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত হাবিবুর রহমান হাবুর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মারপিটের বিষয়টি অস্বীকার করেন।
সাটুরিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button