sliderরাজনীতিশিরোনাম

প্রহসনের নির্বাচন বর্জন ও অবৈধ স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে গণ-আন্দোলন গড়ে তুলুন—এবি পার্টি

পতাকা ডেস্ক : প্রহসনের নির্বাচন বর্জন ও অবৈধ স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে গণ-আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে প্রতিবাদী পদযাত্রা, উদ্বুদ্ধ করণ প্রচারণা, মানব বন্ধন ও বিক্ষোভসহ লাগাতার কর্মসূচি ঘোষনা করেছে আমার বাংলাদেশ পার্টি ‘এবি পার্টি’।
আজ বিকেল ৩ টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে লাইভ ব্রিফিং থেকে কর্মসূচি ঘোষনা করেন এবি পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক ও সুপ্রিম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম। ব্রিফিংকালে আরও বক্তব্য রাখেন এবি পার্টির সিনিয়র সহকারী সদস্যসচিব আনোয়ার সাদাত টুটুল, যুবপার্টির আহবায়ক এবিএম খালিদ হাসান ও মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন।


মিডিয়া ব্রিফিংয়ে তাজুল ইসলাম বলেন, দেশের ৯৫ ভাগ মানুষ গত দুইটি জাতীয় নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি। এবারও হাজার হাজার বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীকে জেলখানায় বন্দী রেখে একদলীয় জালিয়াতির ও তামাশার নির্বাচন করা হচ্ছে। দেশ এক ভয়ানক অর্থনৈতিক সংকটে নিপতিত। ব্যাংকগুলো সরকারী দলের লোক এবং আওয়ামী সুবিধাভোগীদের হাতে লুট হয়ে গেছে। দ্রব্যমূল্য ক্রমাগত বাড়ছে এবং তা দেশের সকল সাধারন মানুষের সাধ্যের বাইরে চলে গেছে। দূর্নীতির সকল সীমা ছাড়িয়ে লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করা হয়েছে। বাস্তবতা হচ্ছে আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীরা পরম সুখে আছে এবং দেশের বাকী সকল মানুষ মারাত্মক অভাবে আছে। মানুষ যে কষ্টে আছে সেকথাও মুখ ফুটে বলতে পারছে না নির্যাতন ও নিপীড়নের ভয়ে। তিনি বলেন, এরকম পরিস্থিতিতে জনগণের রক্ত, ঘাম পানি করে দেয়া ভ্যাট ও ট্যাক্সের হাজার হাজার কোটি টাকা অপচয় করে এই প্রহসনের নির্বাচন জাতির সাথে একটি জঘন্য প্রতারণা। এই পাতানো ভোট চুরির নির্বাচন প্রত্যাখ্যান ও বর্জন করার জন্য তিনি দেশবাসীকে আহ্বান জানান। তিনি দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন; আপনারা আপনাদের বন্ধু স্বজন ও প্রতিবেশীদের সচেতন করুন। এই হটকারী নির্বাচনে সব ধরনের সমর্থন ও সহযোগিতা থেকে বিরত থাকুন এবং অন্যদের বিরত থাকতে উদ্বুদ্ধ করুন। একদলীয় স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে আপনার প্রতিবাদ, প্রতিরোধ, লেখনি ও সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত রাখুন।
বক্তব্য শেষে তিনি আগামী ২৩শে ডিসেম্বর শনিবার বেলা ১২টায় “প্রহসনের নির্বাচন বর্জনে প্রচার ও উদ্বুদ্ধকরণ পদযাত্রা” আগামী ২৪ ডিসেম্বর বিকাল তিনটায় “প্রহসনের নির্বাচন বর্জনের দাবিতে মানববন্ধন” সহ লাগাতার কর্মসূচি ঘোষণা করেন।
লাইভ ব্রিফিংকালে আরও উপস্থিত ছিলেন, এবি পার্টির সহকারী সদস্যসচিব শাহ আব্দুর রহমান, যুবপার্টির সদস্য সচিব শাহাদাতুল্লাহ টুটুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন, যুগ্ম সদস্য সচিব সফিউল বাসার, কেফায়েত হোসেন তানভীর, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ফেরদৌসী আক্তার অপি, সেলিম খান, আমেনা বেগম, রিপন মাহমুদ, আমানুল্লাহ খান রাসেল, আমিরুল ইসলাম নুর, যুবপার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব শাহিনুর আক্তার শীলা,
সহকারী অর্থ সম্পাদক সুমাইয়া শারমিন ফারহানা, পল্টন থানা আহবায়ক আব্দুল কাদের মুন্সি সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button