sliderরাজনীতিশিরোনাম

প্রহসনের নির্বাচন প্রক্রিয়ায় যারা জড়িত তারা দেশদ্রোহী-এবি পার্টি

পতাকা ডেস্ক : প্রহসনের নির্বাচন বর্জনে প্রচারপত্র বিলি ও প্রতিবাদী পথবক্তব্য প্রদানকালে আমার বাংলাদেশ পার্টির নেতারা বলেছেন, প্রহসনের নির্বাচন প্রক্রিয়ায় যারা জড়িত তারা জনতার আদালতে দেশদ্রোহী।
৭ জানুয়ারির নির্বাচন কে ভোট চুরি করে গদি আঁকড়ে থাকার নির্বাচন আখ্যা দিয়ে তা আবারও বর্জন করার আহ্বান জানিয়েছে আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টি’। এই নির্বাচনে ভোট চাওয়ার জন্য যারা যাবে তাদেরকে চাল, ডাল,তেল, পিয়াজ সহ নিত্যপণ্যের মূল্য সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন এবি পার্টির নেতারা।
আজ বিকেল ৩ টায় রাজধানীর বিজয় নগর ও পল্টন এলাকায় প্রহসনের নির্বাচন বর্জন করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে গণসচেতনতামূলক প্রচারপত্র বিলি ও পথবক্তব্যে এসব কথা বলেন দলের নেতারা। দলের যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম, সদস্যসচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু, যুগ্ম সদস্যসচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, অফিস সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, মহানগর উত্তর আহ্বায়ক আলতাফ হোসেন ও শ্রমিক নেতা শাহ্ আব্দুর রহমানসহ কেন্দ্র এবং মহানগর নেতা-কর্মীরা কর্মসূচিতে অংশ নেন। তারা পল্টন, বিজয় নগর, নয়াপল্টন, কাকরাইল, সেগুন বাগিচা সহ বিভিন্ন অঞ্চলে সর্বসাধারণের মাঝে ‘প্রহসনের নির্বাচন বর্জন করুন’ এই শিরোনামে প্রচারপত্র বিলি করেন। আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচনকে প্রতারণামূলক সাজানো নাটক ও অর্থলোপাটের ডামি নির্বাচন আখ্যায়িত করে দলের নেতারা পথবক্তব্য রাখেন।

কর্মসূচিকালে জনসাধারণের উদ্দেশ্যে পথবক্তব্যে এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন, এই নির্বাচন সব দিক দিয়ে অবৈধ ও সংবিধানের লংঘন। যারা এই নির্বাচন প্রক্রিয়ায় যুক্ত তারা জনতার আদালতে দেশদ্রোহী। আওয়ামীলীগ জাতির সাথে প্রচারণা করে ভোট চুরি করে গদি আঁকড়ে থাকার জন্য এই নির্বাচন আয়োজন করেছে। তিনি দেশবাসীকে এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান ও বর্জন করার আহ্বান জানান।
সদস্যসচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু জনগণকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যারা নৌকা বা নানা মার্কা সম্বল করে ডামি নির্বাচনে আপনাদের কাছে ভোট চাইতে যাবে তাদের কাছে আপনারা পিয়াজের কেজি কেন আড়াইশ টাকা তা জিজ্ঞাসা করবেন। ১০ টাকা কেজি দরে চাল কেথায়? বিনামূল্যে সার কই? সাগর রুনি হত্যার বিচার কেন হয়নি- এসব বিষয়ে প্রশ্ন করবেন। চাল, ডাল,তেল, পিয়াজ সহ নিত্যপণ্যের মূল্য বাড়িয়ে কারা ৯২ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে তা জানতে চান? তিনি বলেন এসব প্রশ্নের উত্তর ছাড়া কেউ ভোট দিতে যাবেন না। এটা আমাদের আহ্বান ও অনুরোধ। তিনি রংপুরে প্রচারপত্র বিলি কর্মসূচি পালনকালে এবি পার্টির ৩ নেতাকে তুলে নিয়ে থানায় নির্যাতন এবং গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।


কর্মসূচিতে আরও অংশগ্রহণ করেন সিনিয়র সহকারী সদস্য সচিব আব্দুল বাসেত মারজান, সহকারী সদস্যসচিব মেহেদী হাসান চৌধুরী পলাশ, অধ্যাপক আবু হেলাল, এসএম আক্তারুজ্জামান, ছাত্রপক্ষের আহ্বায়ক মো. প্রিন্স, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সেলিম খান, আব্দুল হালিম নান্নু, আমিরুল ইসলাম নুর, শাহজাহান বেপারী, আমেনা বেগম, আমানুল্লাহ খান রাসেল, মশিউর রহমান মিলু, রুনা হোসেন, যুবপার্টি মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব শাহিনুর আক্তার শীলা, পল্টন থানা আহবায়ক আব্দুল কাদের মুন্সি, ছাত্রপক্ষের সহকারী সদস্য সচিব হাসিবুর রহমান খান সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button