sliderউপমহাদেশশিরোনাম

পাঞ্জাব উপনির্বাচন : বিপুল ব্যবধানে জয়ী হতে যাচ্ছে ইমরান খানের দল

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদের ২০টি আসনের উপনির্বাচনে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) বিপুলভাবে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় ফিরতে যাচ্ছে। বেসরকারিভাবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২০টি আসনের মধ্যে ইতোমধ্যে ৫টিতে জয় নিশ্চিত করেছে দলটি এবং আরো ১২টি আসনে এগিয়ে রয়েছে পিটিআই।
রোববার রাত ১১টার দিকে জিও নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য দেয়া হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, মুসলিম লিগ-এন (পিএমএল-এন) মাত্র দু’টি আসনে জয় পেয়েছে।
অপরদিকে নির্বাচনে নিজেদের পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছে মুসলিম লিগ। দলটির নেতা মালিক আহমাদ খান জিও নিউজকে বলেন, ‘মন থেকে গ্রহণ করে নিলাম যে, পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফের ঐতিহাসিক বিজয় অর্জিত হয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘জনগণের ভোট আমাদের বিপক্ষে এসেছে। তারা ভোটের মাধ্যমে নিজেদের মত ব্যক্ত করেছে।’
আহমাদ খান বলেন, নির্বাচনের ফলাফল বলছে যে, আমাদের সাথে বেশিরভাগ জনগণ নেই। আমার পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে কথা হয়েছে। তিনিও জনগণের মতকে সম্মানের নির্দেশ দিয়েছেন।
রোববার পাঞ্জাবের ১৪টি জেলার ২০টি আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কোনো বিরতি ছাড়াই ভোট গ্রহণ অব্যাহত থাকে। এই নির্বাচনে জয়ের জন্য উভয় দলই সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েছিল। কারণ, পাকিস্তানের সবচেয়ে প্রভাবশালী প্রদেশের ক্ষমতাসীন দল নির্ধারণ এবং পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনেও এর প্রভাব পড়বে।
আনাস্থা প্রস্তাবে পরাজয়ের মুখে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন ইমরান খান। পাঞ্জাবে ইমরান খানের দল পিটিআইয়ের ২৫ জন সদস্য হামজা শাহবাজকে ভোট দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত করে। এদের মধ্যে ২০ জন ছিলেন সরাসরি ভোটে নির্বাচিত। বাকি পাঁচজন ছিলেন মনোনীত। পরে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন আসনগুলো শূন্য ঘোষণা করে। ওই ২০টি শূন্য আসনেই রোববার নির্বাচন হয়।

পাঞ্জাব উপনির্বাচন : পরাজয় মেনে নেয়ার পরামর্শ দিয়ে যা বললেন মারিয়াম নওয়াজ

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদের ২০টি আসনের উপনির্বাচনে পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-এন (পিএমএল-এন)। ভোটের ফলাফল মেনে নিতে নেতাকর্মীদের বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন দলটির সহ-সভাপতি মারিয়াম নওয়াজ।
রোববার রাতে এক টুইটবার্তায় তিনি এ নির্দেশনা দেন। তাতে তিনি বলেন, মুসলিম লিগ-এনের জন্য নির্বাচনের ফলাফল মনখুলে মেনে নেয়া উচিৎ।
মারিয়াম নওয়াজ আরো লিখেন, জনগণের সিদ্ধান্তের সামনে মাথা ঝোঁকানো উচিৎ। রাজনীতিতে জয়-পরাজয় হতে থাকবে। আমাদের মন বড় করতে হবে।
নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি লিখেন, যেখানে যেখানে দুর্বলতা আছে সেসব জায়গা নির্দিষ্ট করে সেখান থেকে দুর্বলতা দূর করার জন্য পরিশ্রম করতে হবে। ইনশাআল্লাহ এতেই কল্যাণ নিহিত।

পাঞ্জাব উপনির্বাচন : বিজয় ভাষণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ইমরান খান

পাকিস্তানের পাঞ্জাব উপনির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে এখন পর্যন্ত বেশ এগিয়ে রয়েছে ইমরান খান নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই)। তার দলের বিজয় একপ্রকার নিশ্চিত। তাই বিজয় ভাষণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।
রোববার রাত সোয়া ১১টার দিকে জিও নিউজের উর্দু ভার্সন একটি সূত্রের বরাত দিয়ে জানায়, পিটিআই চেয়ারম্যান বিজয় ভাষণ দেয়ার জন্য দলের সর্বোচ্চ নেতাদের সাথে পরামর্শ করছেন।
জিও নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইমরান খান ভাষণে পাঞ্জাবী জনগণের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করবেন। একইসাথে তাতে তিনি আগামীর পরিকল্পনাও শোনাবেন জনগণকে।
সূত্রটি জানায়, ইমরান খান সরকারের কাছে ফের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানাবেন। ভাষণের আগে পিটিআইয়ের জ্যেষ্ঠ নেতাদের সাথে বৈঠক করবেন তিনি। বৈঠকে পাঞ্জাবের ভবিষ্যৎ রাজনীতিসহ প্রাদেশিক সরকারের কর্মপরিকল্পনা নিয়েও আলোচনা হতে পারে।

Related Articles

Back to top button