sliderস্থানীয়

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির-২ কর্মকর্তাদের কর্মবিরতি পালন

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি-২ কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা চুক্তি থেকে মুক্তি চাই নিয়মিত চাকুরী চাই স্লোগানে কর্মবিরতি পালন করছে।

প্রধানমন্ত্রী ও বিদ্যুৎ বিভাগের নির্দেশনা অমান্য করে, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড পল্লী বিদ্যুত সমিতি সমূহে শোষণ নির্যাতন, -নিপীড়ন অব্যাহত রাখা, গুণগত মানহীন মালামাল ক্রয় করে, গ্রাহক ভোগান্তি বৃদ্ধি করার প্রতিবাদে এবং স্মার্ট ও টেকসই বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিআরবি-পিবিএস একীভূতকরণসহ অভিন্ন চাকুরী বিধি বাস্তবায়ন ও সকল চুক্তি ভিত্তিক ও অনিয়মিত চাকুরী নিয়মিত করণের দাবীতে এ কর্মবিরতি পালন করেছে।

আজ সোমবার দপুুর ১ টদয় ঢাকা কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের পাশে রাজেন্দ্রপুর বিদ্যুত অফিসের সামনে এ কর্মবিরতি পালন করে।

জুনিয়র প্রকৌশলী মামুন খান বলেন, অভিন্ন সার্ভিস কোড এবং চুক্তি থেকে মুক্তি দিতে হবে।

অর্থ বিভাগের হিসাবরক্ষক কবির হোসেন বলেন, বৈষম্য দূর না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। কেও এ সি রুমে বসে অর্ডার করবে, আপনারা কাজ করবেন, তা হবে না। সময় মতো খাবার পাবেন না, তা হবে না।

হ্যান্ড বিলে লেখা – নিম্নমানের মালামাল ক্রয়ের কারণে শতকরা ৮০ ভাগ বিদ্যুত বিভ্রাট। একই প্রতিষ্ঠানে দ্বৈতনীতি চলবেনা। মিটার রিডার মেসেঞ্জার (চুক্তি ভিত্তিক) নিয়মিত করতে হবে।
লাইনক্রু লেভেল ১/২ দের চাকুরী নিয়মিত চাই।

লাইন টেকনিশিয়ান আমিনুল ইসলাম বলেন, আমরা ভারতীয় নই, আমরা বাংলাদেশী। আামাদের কানা ও মনা বলা চলবেন না। আামাদের দাবী মেনে নিন। আামাদেরকে কর্মজীবনে ফিরে যাওয়ার সুযোগ দিন।

মিটার রিডার কাম মেসেন্জার মনির হোসেন বলেন, যতক্ষণ আরইবি না হঠাতে পারবো, ততক্ষণ আন্দোলন চলবে।

শ্রমিক হেকমত আলী (আমরাইদ জোন), আমরা নির্যাতনের শিকার। এ নির্ষাতন থেকে মুক্তি পেতে চাই।

প্রকৌশলী ডিজিএম সুকুমার চৌধুরী, এজিএম (এমএস)জহির আব্বাস খান, এজিএম (অর্থ) ইফতেখার আহমেদ, এজিএম (ইএনসি) আরিফুল ইসলাম, এজিএম আইটি এনামুল হক, এজিএম (প্রসাসন) এ এইচ এম মহিবুল্লাহ, এজিএম (ও এন্ড এম) মহসিন বাবুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button