sliderস্থানীয়

নিয়ামতপুরে অনাবৃষ্টিতে আউশের মাঠ ফেটে চৌচির

নিয়ামতপুর(নওগাঁ)প্রতিনিধি: নওগাঁ নিয়ামতপুর উপজেলা কোথাও এক মাস ধরে বৃষ্টি নেই। কোথাও বৃষ্টি হলেও তা আবাদের জন্য পর্যাপ্ত নয়। খরায় আউশ ও আমন ধানের মাঠ ফেটে যাচ্ছে। আকাশে মেঘের ভেলা ভেসে বেড়ালেও বৃষ্টি হচ্ছে না। বৃষ্টি না হওয়ায় আউশের মাঠ পুড়ছে। জমি ফেটে চৌচির হতে শুরু করেছে। উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের কৃষক শাহিন আলী বলেন, ঠিকমতন বৃষ্টি হয় না। এভাবে যদি চলে তাহলে তো জমি পড়ে থাকিবে, আবাদসাবাদ করা যাবে নাই। বৃষ্টি না হওয়ায় আমন আবাদ নিয়ে শঙ্কায় চাষীরা। তিনি আরোও বলেন, যে জমিতে আউশ ধানের চারা লাগানো হয়েছে। সে সব ফসলের মাঠ ফেটে চৌচির হয়ে গিয়েছে। এদিকে আমন ধানের চারাও বড় হয়েছে। পানির অভাবে রোপণ করতে পারছেন না তারা। এ বছরই শুধু নয়, কয়েক বছর ধরেই আবহাওয়া এমন বিড়ম্বনায় ফেলছে। উপজেলা শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের কৃষক মিজানুর বলেন, আমন আবাদের জন্য জমিতে চাষ দিয়েছি। কিন্তু এক ফোঁটা পানিও নেই। এ অবস্থায় কিভাবে আমন রোপণ করব, এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। আবার কেউ কেউ সেচ পাম্পের মাধ্যমে জমিতে সেচ দিয়ে চারা রোপন করছে। নিয়ামতপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আমীর আবদুল্লাহ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বেশ কয়েক দিন থেকে অনাবৃষ্টি চললেও আমন চাষের এখনও সময় রয়েছে। তাছাড়া বিকল্প সেচ ব্যবস্থার মাধ্যমে কৃষক ইতিমধ্যে ১০/১৫ ভাগ আমনের চারা রোপণ করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button