sliderরাজনীতিশিরোনাম

নির্বাচনী নাটক মঞ্চস্থ করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করছে সরকার-এবি পার্টি

পতাকা ডেস্ক: লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীতে প্রহসনের নির্বাচন বর্জনে প্রচারপত্র বিলি করেছে আমার বাংলাদেশ(এবি) পার্টি। রাজধানীর বিজয়নগর, কাকরাইল, পল্টন, সেগুনবাগিচা এলাকায় বিকাল তিনটা থেকে প্রচারপত্র বিলি শুরু হয়। প্রচারপত্র বিতরণ পর্বের শুরুতে বক্তব্য রাখেন এবি পার্টির যুগ্ম আহবায়ক প্রফেসর ডাঃ মেজর (অবঃ) আব্দুল ওহাব মিনার, বিএম নাজমুল হক, আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, প্রচার সম্পাদক আনোয়ার সাদাত টুটুল, যুবপার্টির আহবায়ক এবিএম খালিদ হাসান ও সহকারী সদস্যসচিব ব্যারিস্টার নাসরিন সুলতানা মিলি।

মেজর (অব.) আব্দুল ওহাব মিনার বলেন, এবি পার্টি প্রতিদিন এই প্রহসনের নির্বাচনের বিরুদ্ধে কর্মসূচি পালন করে আসছে। সরকার জনগণের উপর যে জুলুম নির্যাতন করেছে তাতে একটি স্বচ্ছ, অংশগ্রহণ মূলক নিরপেক্ষ নির্বাচন করার সাহস তাদের নাই। আওয়ামীলীগ এলাকায় এলাকায় জনগণকে বলছে আপনারা ভোট দিতে আসুন, জনগণ কাকে ভোট দিবে? নৌকা আর ডামি নৌকা, পছন্দের প্রার্থী বাছাই করার কোন সুযোগ জনগণের নাই। এখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে, বিভিন্ন জায়গায় ভয়ভীতি দেখিয়ে ভোটকেন্দ্রে লোক আনার নাটক সাজানো হচ্ছে। আমরা এই সাজানো নাটককে প্রত্যাখ্যান করছি জনগণকে বলবো আপনারাও এই প্রতারণার নির্বাচনকে বর্জন করুন।
বিএম নাজমুল হক বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারী সরকার যে প্রহসনের নির্বাচন আয়োজন করেছে তাতে দেশের নব্বই ভাগ মানুষ সমর্থন করেনা। জনমত উপেক্ষা করে নির্বাচন কমিশন এই নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের ব্যবসা বানিজ্য ও অর্থনীতিকেও স্যাংশনের হুমকিতে ফেলছে। দেশের গার্মেন্টস সহ ব্যবসা বানিজ্যে স্যাংশন আসলে এর দায়ভার এই সরকার ও নির্বাচন কমিশন এড়াতে পারবেনা।


ব্যারিস্টার নাসরীন সুলতানা মিলি বলেন, নির্বাচনের নামে প্রহসনের যে নাটক হাজার কোটি টাকা খরচ করে করা হচ্ছে তা খুবই নিন্দনীয় ও লজ্জাজনক। প্রধানমন্ত্রী নিজে দুর্ভিক্ষের কথা বলেছেন অথচ তা নিয়ে কোন পদক্ষেপ নাই। উনি এখন ব্যাস্ত ক্ষমতা চিরস্থায়ী করার প্রক্রিয়া নিয়ে।
কর্মসূচি চলাকালে পথচারীদের উদ্দেশ্যে নির্বাচন বর্জনের আহ্বান জানিয়ে প্রচারপত্র বিলি করেন সদস্যসচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু, যুগ্ম সদস্যসচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, পার্টির সিনিয়র সহকারীসদস্য সচিব আব্দুল বাসেত মারজান, মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন, সহকারী সদস্যসচিব শাহ আব্দুর রহমান, মেহেদী হাসান চৌধুরী পলাশ, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন, যুগ্ম সদস্য সচিব সফিউল বাসার, সহকারী অর্থ সম্পাদক সুমাইয়া শারমিন ফারহানা, যুবপার্টি মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব শাহিনুর আক্তার শীলা, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আব্দুল হালিম নান্নু, আমিরুল ইসলাম নুর, আমানুল্লাহ খান রাসেল, মশিউর রহমান মিলু, রিপন মাহমুদ সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button