sliderস্থানীয়

নাশকতা মামলার আসামি ইউএনও অফিসের অপারেটর, আ’লীগ নেতাদের অভিযোগ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিসে উদ্যোক্তা হিসেবে কর্মরত মো: এনায়েত হোসেন পাঠোয়ারীকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি – সাধারণ সম্পাদক।

আওয়ামীলীগ সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্র ও অপচেষ্টায় জড়িত থাকার অভিযোগে তাহিরপুর থানার দায়েরকৃত সন্ত্রাস ও নাশকতা মামলার আসামি মো: এনায়েত হোসেন পাটোয়ারীকে রাষ্ট্রীয় ও স্থানীয় আইন-শৃঙ্খলার স্বার্থে এমন অভিযোগ করেছেন বলে জানান আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারী) তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালমা পারভীন বরাবরে এ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহীনুর তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক বাবুল মিয়া। উল্লেখ্য, এর আগে একই বিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরেও লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়।

লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিসে উদ্যোক্তা হিসেবে কর্মরত মো: এনায়েত হোসেন পাঠোয়ারী সহ তার পরিবারের সদস্যরা বিএনপি-জামায়াতের সক্রিয় কর্মী। বিগত ৪ নভেম্বর ২০১৮ ইং তারিখে আ:লীগ সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য বিভিন্ন অপতৎপরতায় লিপ্ত ছিল। ঐ সময় তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক ঝাড়ু ও জুতা মিছিলে অংশগ্রহণ করে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি করার চেষ্টায় জড়িত ছিল । যার ফলে এনায়েত পাটোয়ারী ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে তাহিরপুর থানায় নাশকতার মামলা নেওয়া হয়, যা এখনও বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে । চলমান বিভিন্ন সরকার বিরোধী আন্দোলনে তার পরিবার সক্রিয় ভাবে জড়িত। এনায়েত হোসেন পাঠোয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে উদ্যোক্তা হিসেবে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে । গুরুত্বপূর্ণ এ অফিসের সকল প্রকার ই-মেইল এনায়েত পাঠোয়ারীর নজরে আসায় বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাঁধাগ্রস্থ হওয়ার আশঙ্কায় রাষ্ট্রীয় ও স্থানীয় আইন-শৃঙ্খলার স্বার্থে এনায়েত পাটোয়ারীকে ইউএনও অফিস হইতে সরানো আবশ্যক।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, এনায়েত পাঠোয়ারীকে ইউএনওর সঙ্গে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায়। অফিসিয়াল অনেক কাজেও তাকে সঙ্গে রাখা হয়। ইউএনও, র নাম ভাঙ্গিয়ে এনায়েত বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নিতি ও বাণিজ্যর সাথে জড়িত রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালমা পারভীন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তবে এ বিষয়ে আমি কোনো কথা বলতে রাজি নই।

তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, এনায়েত উদ্যোক্তা হিসেবে উপজেলা পরিষদে কাজ করার কথা, কিন্তু এ পর্যন্ত সে কোনো উদ্যোগ গ্রহন করতে পারে নাই। তার বিষয়ে লিখিত ও মৌখিক একাধিক অভিযোগ পেয়েছি। এ ব্যপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button