sliderস্থানীয়

নাটোরে বজ্রপাতে নিহত ২, আহত ৮

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের বাগাতিপাড়ায় চায়ের দোকানে বজ্রপাতে আশিক আলী (২০) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ৭ জন। এছাড়া বড়াইগ্রামে কৃষি জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে ছলিমউদ্দিন প্রামাণিক (৪৫) নামে এক কৃষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
সোমবার (১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাগাতিপাড়ার করমদোসী এলাকায় একটি চায়ের দোকানে আকস্মিক বজ্রপাত হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহত আশিক একই এলাকার সিহাব উদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি ছিলেন।
বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, বাড়ির পাশে চায়ের দোকানে বসেছিলেন আশিক ও তার বাবা সিহাব উদ্দিনসহ আরও ১০/১২ জন। এ সময় বৃষ্টি শুরু হয় এবং কিছুক্ষণ পর দোকানটিতে হঠাৎ বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই আশিক মারা যান। আহত হন সিহাব উদ্দিন, মোমীন, হাফেজ, সারোয়ার, বেলাল, শফিক ও রুপারী বেগম। আহতদের মধ্যে ৫ জনকে পুঠিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া অপর ২ জনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
নাটোরের বড়াইগ্রামে কৃষি জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে এক কৃষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। নিহত কৃষকের নাম ছলিমউদ্দিন প্রামাণিক (৪৫)। সে উপজেলার বনপাড়া পৌর শহরের চকপাড়া এলাকার মৃত নইমউদ্দিন প্রামাণিকের ছেলে। সোমবার সকাল ১০টার দিকে গুড়িগুড়ি বৃষ্টির সময় পাশ^বর্তী চিনিডাঙ্গা বিলে ধানের জমিতে কাজ করার সময় আকস্মিক বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হয় অপর কৃষক বনপাড়া পৌর শহরের মহিষভাঙ্গা এলাকার ছাবেদ চৌধুরী (৪৪)। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

Related Articles

Back to top button