sliderজাতীয়

নজরুল সাম্য ও সহাবস্থানের কবি-তমদ্দুন মজলিস

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল তমদ্দুর মজলিস আয়োজিত আলোচনায় বক্তারা বলেছেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন, ‘সাম্য ও সহাবস্থানের কবি’।

১৯২২ সালে ধূমকেতু পত্রিকায় সমগ্র ভারতবর্ষের পক্ষে প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা দেন কাজী নজরুল। এ কারণেই তাকে কারারুদ্ধ করা হয়। সাহিত্যের এমন কোনো অধ্যায় নেই যেখানে নজরুলের পদচারণা ছিল না। তিনি একাধারে কবি, লেখক, গীতিকার, গায়ক, চলচ্চিত্রকার, নাট্যকার, অভিনেতা ও সাংবাদিতকায় ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেন।

রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেস কাব মিলনায়তনে তমদ্দুন মজলিসের সভাপতি অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুস সামাদের সভাপতিত্বে ‘নজরুল সাম্য ও সহাবস্থানের কবি’ শীর্ষক আলোচনা ও সাংস্কতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সঙ্গীত ও সাহিত্য ব্যক্তিত্ব মুস্তফা জামান আব্বাসী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক ও প্রবীণ সাংবাদিক অধ্যাপক আবদুল গফুর। আলোচনা করেন শেখ দরবার আলাম, মিন্টু রহমান, সঙ্গীত শিল্পী শবনম মুশতারী, সাংবাদিক আবদুল আউয়াল ঠাকুর প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button