sliderস্থানীয়

ধামরাইয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অব্যাহতি

টাকা নিয়ে পরীক্ষার্থীদের সুবিধা দেওয়ার অভিযোগ

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি: ঢাকার ধামরাইয়ে আর্থিক সুবিধা নিয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের সুবিধা দেওয়ার অভিযোগে ইউএনওর মনোনীত এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস রহমানকে কেন্দ্রের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অব্যাহতির বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ।

জানা গেছে, ধামরাইয়ের যাদবপুর বিএম স্কুল ও কলেজ কেন্দ্রে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় ফেরদৌস রহমানকে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে মনোনীত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। ওই কেন্দ্রে পাশের সাভার ও আশুলিয়া থানার ৭-৮টি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছেন। গত বৃহস্পতিবার তিনি বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষায় কেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করেন। ওইদিনই স্থানীয়দের কাছ থেকে মৌখিকভাবে ইউএনও জানতে পারেন এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়েছেন এবং পরীক্ষায় সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। এরপরই ফেরদৌস রহমানকে ওই কেন্দ্রের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেন তিনি।

এ বিষয়ে যাদবপুর বিএম স্কুল ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা আকলিমা আক্তার বলেন, কি কারণে কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস রহমানকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে তা আমার জানা নেই।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ সাংবাদিকদের বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়েছেন এমন মৌখিক অভিযোগ পাওয়ার পরই কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস রহমানকে ওই কেন্দ্র থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ফেরদৌস রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ইউএনও স্যার যেহেতু আমাকে কেন্দ্রের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন তার সিদ্ধান্তের বাইরে আমার কিছু বলার নেই।

স্থানীয়রা জানান, ওই কেন্দ্রে ব্যাপক নকল সরবরাহ করা হয়। গত ২০২৩ সালের পরীক্ষায় ওই সময়ের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী একদিনে ২১ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার করেছিলেন। তাই এ বছর কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্তকে ম্যানেজ করা হয়েছে বলে জানান তারা।

এ ব্যাপারে ধামরাই উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহীন আশরাফী বলেন, ফেরদৌস রহমানকে কেন্দ্রের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার বিষয়টি শুনেছি। তবে এখনও আমি চিঠি পাইনি।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button