sliderস্থানীয়

দেশের গণতন্ত্র কোথায়, আলী আজমের ডান্ডাবেড়িই তার প্রমাণ : গয়েশ্বর

গাজীপুর প্রতিনিধি : ‘দেশের গণতন্ত্র আজ কোথায় দাঁড়িয়েছে, তা প্রমাণের জন্য কালিয়াকৈর বিএনপি নেতা আলী আজমের ডান্ডাবেড়িই যথেষ্ঠ’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নিজেদের অফিস ভাঙচুরের অজুহাতে মিথ্যা মামলায় তাকে গ্রেফতার করেছে। এরপর রিমান্ডে নিয়ে চালিয়েছে অমানুষিক নির্যাতন। যে মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে, তার এজাহারে নেই আজমের নাম। এমনকি মামলায় যাকে বাদী দেখানো হয়েছে, তিনি নিজেও জানেন না এ সম্পর্কে কিছু।’

শুক্রবার কালিয়াকৈরের আলোচিত বিএনপি নেতা আলী আজমের পরিবারকে সান্ত্বনা ও নগদ অর্থ সহায়তা দিতে তার গ্রাম পাবুরিয়াচালায় এসে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তার সাথে কেন্দ্রীয় বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল ছিল।

গয়েশ্বর আফসোস করে বলেন, ‘আলী আজমের বয়োবৃদ্ধ মা ছেলের শোকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন। সেই মায়ের জানাজায় তাকে ইমামতি করতে হয়েছে ডান্ডাবেড়ি পরা অবস্থায়। মাত্র তিন ঘণ্টার জন্য প্যারোলে মুক্তি মিললেও ডান্ডাবেড়ি থেকে মুক্তি মেলেনি তার। এতে মৌলিক মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত হয়েছে।’

‘আলী আজম বারবার অনুরোধ জানিয়েছেন ডান্ডাবেড়ি খুলে দেয়ার জন্য। কিন্তু তার প্রতি বিন্দুমাত্র সহানুভূতি দেখানো হয়নি।’ অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘এসব অত্যাচার-নির্যাতন করেও ভোটবিহীন সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। বিজয় মাসের শেষে সংগ্রামী দেশবাসী আরেকটি বিজয় দেখার অপেক্ষায় রয়েছে।’

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে আসা প্রতিনিধি দলটি স্থানীয় নেতাদেরকে সাথে নিয়ে আলী আজমের মায়ের কবর জিয়ারত করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক বেনজির আহমেদ টিটু, নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী ছাইয়্যেদুল আলম বাবুল, কালিয়াকৈর পৌর মেয়র মজিবুর রহমান, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা: শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাহ রিয়াজুল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক ড. ব্যারিস্টার ইশরাক আহমেদ সিদ্দিকী, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ভিপি আ ন ম ইব্রাহিম খলিল চেয়ারম্যান, কালিয়াকৈর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পারভেজ আহমেদ, বোয়ালী ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অরুন প্রসাদ মজুমদার।

এদিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের আগমনের খবর পেয়ে সকাল থেকেই জেলা ও উপজেলার হাজার হাজার নেতাকর্মী জড়ো হতে থাকেন আজমের গ্রাম পাবুরিয়াচালায়। প্রতিনিধি দলটি আজমের বাড়ির কাছে পৌঁছলে গ্রামবাসী ও নেতাকর্মীরা মুহুমুর্হু শ্লোগানে তাদেরকে বরণ করে নেন।

এ সময় স্থানীয় নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু তাহর মুছুল্লী, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক আতাউর রহমান মোল্লা, সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, কালিয়াকৈর উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি জাফর ইকবাল জনি প্রমুখ।

Related Articles

Back to top button