sliderস্থানীয়

তাহিরপুর সীমান্তে চোরাই কয়লা আনতে গিয়ে ভারতে ফের বাংলাদেশী যুবকের মৃত্যু

আমির হোসেন, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তে অবৈধ পথে ভারত থেকে চোরাই কয়লা আনতে গিয়ে চোরাই কয়লায় গুহায় (গর্তের) পাথার চাপায় ফের বাংলাদেশী যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত যুবক চানপুর গুচ্চ গ্রামের সিকান্দারের ছেলে হাসেন আলী(৩৮)

সীমান্তে জিরো পয়েন্ট অতিক্রম করে ভারতীয় সীমান্তের কাঁটা তারের বেড়া সংলগ্ন বাংলাদেশীদের করা অবৈধ কয়লার গর্ত(গুহা) থেকে চুরি করে কয়লা আনতে গিয়ে যেন থামছেইনা বাংলাদেশীদের মৃত্যুর মিছিল। অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম করে চোরাই কয়লার গুহায় থেকে কয়লা আনতে ভারতে গিয়ে গুহার পাথার চাপায় ও চোরাই কয়লা নিয়ে সংঘর্ষে গত ৩ দিনের ব্যবধানে মৃত্যু হয়েছে তিন বাংলাদেশি যুবকের।
এ ঘটনাটি ঘটেছে আজ (১১ এপ্রিল) বৃহস্পতিবার ভোররাতে উপজেলার চাঁনপুর ও ট্যাকেরঘাট সীমান্তের আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলার ১২০০ এর রজনী লাইন এলাকায়।

এ সত্যতা নিশ্চিত করে তাহিরপুর থানার ওসি মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের বলেন, চুরি করে কয়লা আনতে ভারতে গিয়ে প্রতিদিনই ঘটছে এরকম দূর্ঘটনা। আমরা বিজিবির সাথে সমন্বয় করে এই মৃত্যুর রোধ করা যায় সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। কি করবো ভাই। এটা বিজিবির ব্যাপার। সীমান্ত বিজিবির দায়িত্বে। কিভাবে তার বিজিবির চোখ ফাঁকি দিয়ে চুরি করে কয়লা আনতে ভারতে যায়।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানাযায়, স্থানীয় একটি প্রভাবশালী কয়লা চোরাকারবারি সিন্ডিকেট চক্র সদস্যদের প্ররোচনায় পড়ে সীমান্তে বসবাসকারী হতদরিদ্র পরিবারের লোকজনকে টাকার লোভে পরে চুরি করে কয়লা আনতে অবৈধ পথে ভারতে যায়। এরই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ১০/১২ জনের একটি কয়লা শ্রমিকের গ্রুপ চাঁনপুর ও ট্যাকেরঘাট সীমান্তের আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলার ১২০০ এর রজনী লাইন এলাকা দিয়ে অবৈধ পথে ভারতীয় কয়লা গুহায় যায় কয়লা আনতে। পরে চোরাই কয়লার গুহার ভিতর থেকে কয়লা বস্তা নিয়ে বেড়িয়ে আসায় সময় হঠাৎ গুহার উপর থেকে বড় পাথরের খন্ড হাসেন আলীর উপর পরলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। এ সময় তার সাথে থাকা অন্য শ্রমিকরা গুহার ভিতর থেকে বেড়িয়ে এসে সকালে নিহত হাসেন আলীর তার বাড়িতে খবর দিলে পরিবারের লোকজনক সকাল ১১ টায় তার লাশ উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। তাহিরপুর থানা পুলিশ খবর পেয়ে দুপুরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরণ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button