sliderস্থানীয়

তাহিরপুর থানার ওসি প্রত্যাহার, পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জে জেলা পুলিশের তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। বুধবার পুলিশ হেডকোয়াটার্স, ঢাকা পার্সোনাল ম্যানেজম্যান্ট-২ শাখা থেকে প্রেরিত স্মারকবলে সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক আদেশে মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনকে প্রত্যাহার করা হয়। সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ হাসপাতালে কর্মরত থাকা অবস্থায় ২০২৩ সালের ২১ নভেম্বর তাকে জেলার তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে পদায়ন করা হয়েছিল। একই আদেশে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমদ ও হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিকুল ইসলাম খানকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। বুধবার পুলিশ হেডকোয়াটার্স, ঢাকার প্রশাসনিক শাখার একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, আপাতত প্রশাসনিক কাঠামোর জটিলতার কারণে তাহিরপুর থানার ওসিসহ সিলেট রেঞ্জের তিন থানার ওসিকেই প্রত্যাহার করেছে পুলিশ হেডকোয়ার্টার। প্রত্যাহার হওয়া তিন ওসিকে আপাতত সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি অফিসে সংযুক্ত করা হয়েছে। পুলিশ হেডকোয়াটার্সের ওই দায়িত্বশীল সুত্রটি জানান, তাহিরপুর থানায় পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কাউসার আলমের ব্যাপারে একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত চলমান রয়েছে। কাউসার আলম বিভিন্ন সময় সহকর্মীদের বিরুদ্ধে বেনামী অভিযোগ করে পুলিশ প্রশাসনকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলার অপেচষ্টা করেছেন।

সিলেট রেঞ্জের হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ সহ বিভিন্ন থানায় তিনি কৌশলে একই রেঞ্জে ১৪ বছরের অধিক সময় ধরে কর্মরত রয়েছেন। তাহিরপুর থানায় বদলী সুত্রে ২০২৩ সালের ১৮ জানুয়ারি পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হিসাবে যোগদান করেন কাউসার আলম। যোগদানের পর থেকেই নানা কর্মকান্ডে বিতর্কিত হওয়ার পাশাপাশী এক নারী কনষ্টেবলসহ একাধিক সহকর্মীদের বিরুদ্ধে অহেতুক পুলিশ হেডকোয়ার্টারে বেনামী অভিযোগ করাতে করাতে সিদ্ধহস্ত হয়ে উঠেন পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কাউসার আলম।
এদিকে তদন্ত এড়িয়ে যেতে ্ইতিমধ্যে স্বেচ্ছায় বদলীর আবেদন করলেও আপাতত তা স্থগিত করেছেন দায়িত্বশীল কতৃপক্ষ। অভিযোগ প্রসঙ্গে তাহিরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কাউসার আলমের বক্তব্য জানতে বৃহস্পতিবার বিকেলে তার ব্যাক্তিগত মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ প্রসঙ্গে আমার কোন কিছুই জানা নেই।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button