sliderস্থানীয়

তরুণ-তরুণীরা ঘরে বসেই বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছেন -প্রতিমন্ত্রী পলক

নাটোর প্রতিনিধি : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, তথ্য-প্রযুক্তির প্রশিক্ষণ গ্রহন করে এদেশের তরুণ-তরুণীরা ঘরে বসেই বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্ব এবং ডিজিটাল আর্কিটেক সজীব ওয়াজেদ জয়ের তত্ত্বাবধায়ন ও পরামর্শে প্রযুক্তির উদ্ভাবনী সংস্কৃতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। এখন আর বাংলাদেশ শ্রম ঘন অর্থনীতির দেশ নয়, তথ্য প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ একটি দেশ।
রোববার (২৪ জুলাই) দুপুরে নাটোর সিংড়া উপজেলায় আইটি/হাই-টেক পার্ক এবং সিনেপ্লেক্স ও ডরমেটরি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন তিনি।
প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের মানুষের ভাষা, সংস্কৃতি এবং আবহাওয়া একই। আমরা দুই দেশের মানুষের চলমান বন্ধুত্বকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের এক হাজার ৯৮৪ সেনা সদস্যের জীবন উৎসর্গসহ ভারতের অসামান্য অবদানকে এদেশের মানুষ শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতায় স্মরণ করে।
পলক আরও বলেন, তরুণ প্রজন্ম যেন উদ্যোক্তা ও আত্মনির্ভরশীল হতে পারে সেজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ব্রেন চাইল্ড ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার এর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এছাড়া পাশেই রয়েছে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি), কারিগরি স্কুল এন্ড কলেজসহ আরো কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে দক্ষ জনবল তৈরি হবে এবং তারাই এই হাই-টেক পার্কে কাজ করবে। তথ্য প্রযুক্তি খাতে ২০ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের তৈরী হয়েছে। তথ্য প্রযুক্তি খাতে ১.৪ বিলিয়ন ডলার উপার্জন করছে বাংলাদেশ।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, ভারতীয় হাই কমিশনার শ্রী বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ বিকর্ণ কুমার ঘোষ, নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিংড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, পৌর মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এম সামিরুল ইসলাম, সহকারি পুলিশ সুপার (সিংড়া সার্কেল) জামিল আকতার, সিংড়া থানার ওসি নূর-এ-আলম সিদ্দিকী প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে প্রযুক্তিতে সফল ১৯ জন উদ্যোক্তার হাতে ল্যাপটপ তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button