sliderশিরোনামশীর্ষ সংবাদ

তরুণদের রাজনীতি ও গণতন্ত্র সম্পর্কে আগ্রহী করে গড়ে তুলতে হবে-স্পিকার

স্পিকার এবং সিপিএ’র চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বিশ্বের তরুণ সমাজকে রাজনীতি ও সংসদীয় গণতন্ত্র সম্পর্কে আগ্রহী ও শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি রোববার জাম্বিয়ার রাজধানী লুসাকায় ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) এর ১৩৪তম এসেম্বলিতে বক্তৃতাকালে এ আহবান জানান।
স্পিকার বলেন, বর্তমানে পৃথিবীর জনসংখ্যার এক পঞ্চমাংশ তরুণ। কিন্তু এই বিশাল তরুণ ও যুব সমাজের মধ্যে রাজনীতির প্রতি অনীহা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। রাষ্ট্রীয় নির্বাচনসমূহে ভোটাধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে তরুণদের উপস্থিতি হ্রাস পাচ্ছে। এটি বিশ্ব গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার জন্য সুখকর নয়। ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বিশ্বে মানব কল্যাণে বড় বড় সকল অর্জন রাজনীতির ফসল। জ্ঞান বিজ্ঞানের নতুন নতুন আবিষ্কারকে মানব কল্যাণে ব্যবহারের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, রাজনীতিতে মেধাবীদের আকৃষ্ট করা না গেলে রাজনীতির সুফল সাধারন মানুষের কাছে পৌঁছানো সম্ভব নয়।
স্পিকার বলেন, গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা অন্যান্য যে কোন শাসন ব্যবস্থা থেকে উত্তম এটি আজ বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। তিনি গণতন্ত্র ও গণতন্ত্র চর্চার বিভিন্ন দিক তরুন সমাজের সামনে তুলে ধরার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
স্পিকার বলেন, তরুণ সমাজের পাশাপাশি বিশ্ব নারী সমাজকেও রাজনীতি ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার সাথে আরও সংশ্লিষ্ট করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, বিশ্ব জনসংখ্যার অর্ধেক নারী হলেও একথা সত্য যে, বিশ্বব্যাপী নারী সমাজ সকল ক্ষেত্রে এখনো অনেক পিছিয়ে রয়েছে। তিনি বলেন, একটি দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে নারী সমাজকে রাজনীতি ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মূল ধারায় সম্পৃক্ত করতে হবে।
স্পিকার বলেন, বাংলাদেশে তরণ সমাজের ঐতিহ্যপূর্ন রাজনৈতিক ইতিহাস রয়েছে। এ দেশের তরুণরাই ভাষার জন্য রক্ত দিয়েছে এবং ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা সংগ্রামে সর্বাত্মক অংশগ্রহণ করে দেশকে স্বাধীন করেছে।তিনি আরো বলেন, তরুণ সমাজকে রাজনীতি ও সংসদীয় গণতন্ত্র সম্পর্কে আগ্রহী ও সচেতন করতে এ বছর কমনওয়েলথ দিবস উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ থেকে রোড শো কর্মসূচী উদ্বোধন করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এটি সকল কমনওয়েলথভুক্ত দেশে পরিচালিত হবে।
১৯-২৩ মার্চ জাম্বিয়ার রাজধানী লুসাকায় ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের ১৩৪তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশী প্রতিনিধি দল অংশগ্রহণ করেছেন। বাসস

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button