sliderস্থানীয়

ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঠাকুরগাঁও জেলায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়। দিবসটি পালনে মঙ্গলবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে অপরাজেয় ৭১ প্রাঙ্গনে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়। এ সময় শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন এমপি । ঠাকুরগাঁও জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সভাকক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহিদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা প্রদান এবং “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক নেতৃত্ব ও দেশের উন্নয়ন” বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক মো: মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন প্রধান অতিথি আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন, বিশেষ অতিথি সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য দ্রৌপদী দেবী আগারওয়ালা, পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুবুর রহমান বাবলু, সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায়, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক, জেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুদ্দোজা বদর, সাবেক উপজেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবোধ চন্দ্র রায়, ঠাকুরগাঁও প্রেসকাব সভাপতি মনসুর আলী প্রমুখ। এছাড়াও দিবসটি পালনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির ও গির্জায় বিশেষ প্রার্থনা করা হয়। বিকেলে সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয় বড় মাঠে জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে পৌর শহরের আর্ট গ্যালারীতে অবস্থিত অপরাজেয়-৭১ প্রাঙ্গণে জেলা প্রশাসক মো: মাহবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, আ’লীগ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, ঠাকুরগাঁও প্রেস কাবসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করা হয়। পরে অপরাজেয়-৭১ প্রাঙ্গন থেকে শহিদ মোহাম্মদ আলীর স্মৃতিস্তম্ভ পর্যন্ত র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, আ’লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের মানুষজন অংশ নেন। পাশাপাশি পৌর শহরের শহিদ মোহাম্মদ আলী, নরেশ চৌহান, মুবিববর্ষ চত্বর, ডিসি পর্যটন পার্কের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় বড় মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ, সমাবেশ, জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button