sliderস্থানীয়

টাকা না দেওয়ায় হাতির আছাড়ে প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জে টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে পোষা হাতির আছাড়ে মাসুদুর রহমান মিস্টন (৪৫) নামের এক ওষুধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২ জুলাই) বিকেল ৩টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় মাহুত ও হাতিকে আটক করেছে পুলিশ।

মাসুদ রহমানের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার সিংরইল গ্রামে। তিনি কিশোরগঞ্জ জেলা সদরে সমাজসেবা কমপ্লেক্স-সংলগ্ন আবাসিক এলাকায় বসবাস করে ওষুধের ব্যবসা করতেন। আটক হাতির মাহুত রিয়াজুল মোল্লা (২৫) গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মৃত আসমত মোল্লার ছেলে।

এর আগে সোমবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় জেলা শহরের নগুয়া বাসস্ট্যান্ড-সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বুধবার (৩ জুলাই) সকাল সাড়ে দশটার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তাফা ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় মাহুত হাতিটিকে নিয়ে টাকা রোজগারের উদ্দেশ্যে রাস্তায় বের হন। জেলা শহরের নগুয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় হাতিকে দিয়ে দোকান থেকে টাকা আদায়ের সময় হাতিটি এআর ফার্মা নামক ফার্মেসির সামনে এসে দাঁড়ায়। ওই সময় দোকানে ওষুধ কিনতে আসা কয়েকজন মহিলা ক্রেতা ভয় পেয়ে দোকানের ভেতরে ঢুকে পড়ে। মালিক মাসুদ রহমান দ্রুত ১০ টাকা দিয়ে মাহুত ও হাতিকে বিদায় করেন। পাশের দোকানে যাওয়ার পর টাকা দেওয়া-নেওয়ার বিষয়কে কেন্দ্র করে শোরগোল শুরু হয়।

একপর্যায়ে হাতিটিকে একটি লাঠি দ্বারা আঘাত করা হয়। হট্টগোল শুনে মাসুদ রহমান নিজ দোকান থেকে বের হয়ে এগিয়ে গেলে আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় ক্ষিপ্ত হাতিটি তাকে শুঁড় দিয়ে জড়িয়ে ধরে ছুঁড়ে মারে। পাকা দেওয়ালের সঙ্গে মাথায় আঘাত লেগে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে রাতেই কিশোরগঞ্জ ও ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার ভোরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরের দিকে তিনি মারা যান।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, হাতি ও হাতির মাহুত রিয়াজুল মোল্লাকে আটক করা হয়েছে। মাহুত অন্য মালিকের হাতি ভাড়ায় এনে টাকা রোজগার করতেন বলে জানা গেছে। এখনও পর্যন্ত কেউ অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। হাতিটিকে বর্তমানে একজন প্রশিক্ষিত ব্যক্তির তত্বাবধানে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button