sliderস্থানীয়

টঙ্গীতে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের স্মরণে দোয়া মাহফিল 

টঙ্গী প্রতিনিধি: গাজীপুরের টঙ্গীতে ভাওয়াল বীর, বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্বাধীনতা (মরণোত্তর) পুরস্কার প্রাপ্ত, প্রয়াত সাংসদ শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ২০ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

গতকাল সোমবার সন্ধ্যা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত টঙ্গীর মুক্তার বাড়ী এলাকায় সিটি কর্পোরেশনের ৫৪ নং ওয়ার্ড যুবলীগ ও আঁধারের আলো ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পূর্ণবাসন সোসাইটির অবিভক্ত টঙ্গী থানার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব জীবন মিয়া সরকারের সভাপতিত্বে ও আঁধারের আলো ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোঃ আক্তার সরকারের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল। প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব কামরুল আহসান সরকার রাসেল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মন্ডল, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ বিল্লাল হোসেন মোল্লা, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সনজিৎ কুমার মল্লিক বাবু, সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন, স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব হারুন অর রশীদ, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান সরকার বাবু, টঙ্গী পশ্চিম থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ মোল্লা মামুন, সাধারণ সম্পাদক সজিব হাসান জয় সহ প্রমুখ। 

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, আমার পিতা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার তার সারা জীবন সৎ ও আদর্শ নিয়ে শিক্ষকতা করেছেন, শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে সংগ্রাম করেছেন, মৃত্যুর আগপর্যন্ত দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষের সেবা করে গেছেন। রাজনৈতিক একটি কুচক্রমহলের ছত্রছায়ায় আমার পিতাকে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এরপর তার স্মৃতি ধারন ও গাজীপুরের জনসাধারণের আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরনের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে উপনির্বাচনে এ আসনে আমাকে মনোনয়ন দিলে আপনারা বিপুল ভোটে আমাকে জয়যুক্ত করান। এর পরপর পাঁচবার আমাকে জয়যুক্ত করার জন্য আপনাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমার পিতার আদর্শকে ধারন করে আমিও দলমত নির্বিশেষে আপনাদের পাশে থেকে সকলের সেবা করে যাচ্ছি এবং ভবিষ্যতেও করে যাব। এ সময় তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফের বরাত দিয়ে এমপি রাসেল বলেন, এমপি মাহবুবুল আলম হানিফ বলেছেন এক বছরের মধ্যে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের হত্যার রায় কার্যকর করা হবে। আলোচনা সভা শেষে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের জীবনী নিয়ে গঠিত ডোকেমেন্টারী ফিল্ম প্রজেক্টরে সম্প্রচার করা সহ জীবনা লেখ্য বইগুলো অতিথিদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এরপর সকল মরহুমদের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া পাঠ শেষে উপস্থিত সকলের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। এসময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ স্থানীয় এলাকার সর্বস্তরের বাসিন্দারা অংশ নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button