sliderআন্তর্জাতিক সংবাদশিরোনাম

কে জানে আমিই তোমার বাবা কি না, হ্যারিকে বলেছিলেন চার্লস

‌‘প্রিন্সেস ইন লাভ’ নামে ১৯৮৬ সালে একটি বই প্রকাশ করেছিলেন আনা পাস্তারনাক। বইতে তিনি দাবি করেছিলেন, ডায়ানা মেজর জেমস হিউইটের প্রেমে পড়েছেন। বইটি প্রকাশের পর ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন ডায়ানা। এবার ডায়ানার ছোট ছেলে হ্যারিও বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন। তিনি দাবি করেছেন, তার বাবা বর্তমান ব্রিটিশ রাজা (সাবেক প্রিন্স অব ওয়েলস) চার্লস হ্যারির পিতৃপরিচয় নিয়ে কৌতুক করেছিলেন।

‘স্পেয়ার’ নামে একটি বই লিখেছেন ৩৮ বছর বয়সী হ্যারি। তাতে হ্যারি লিখেছেন, চার্লস মানসিক রোগীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শন করেছিলেন। সেখানকার এক রোগী নিজেকে প্রিন্স অব ওয়েলস দাবি করতেন। ওই সময় রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের বড় ছেলে চার্লসের পদবিই ছিল প্রিন্স অব ওয়েলস। 

হ্যারি জানান, তার বাবা গল্প করতে ভালোবাসেন। সেসব গল্প মজার না হলেও চার্লস তাতে হাসতেন। দার্শনিকের মতো বলতেন কে জানে আমি আসলেই প্রিন্স অব ওয়েলস কি না। কে জানি আমিই তোমার সত্যিকারের বাবা কি না? তিনি হাসতেন এবং হেসেই যেতেন। যদিও এটা কোনো মজার কৌতুক ছিল না। সেসময় গুঞ্জন ছিল যে আমার আসল বাবা মায়ের সাবেক প্রেমিক মেজর জেমস হিউইট। এমন গুঞ্জন ছড়ানোতে মেজর হিউইট নিজেই ইন্ধন জুগিয়েছেন, অন্য কারণটা হলো এমন নির্মম কৌতুক’।

সূত্র : নিউজ অস্ট্রেলিয়া

বিডি প্রতিদিন

Related Articles

Back to top button