sliderস্থানীয়

কেরানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

মোঃ মাসুদ, কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি : ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গতকাল শনিবার দুপুরে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় মামলা হয়েছে।
গত শুক্রবার আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয় ভাংচুর ও নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য হাজী মোঃ নাজিম উদ্দিন মাষ্টার সহ শতাধিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে কেরানীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ জন বিএনপি নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার ২৭ মে নেতাকর্মীদের উপর হামলা ও দলীয় কার্যালয় ভাংচুরের প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষেভ মিছিল করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগ।

দলীয় কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে কদমতলী গোল চত্তর হয়ে চুনকুটিয়া চৌরাস্তা গিয়ে বিক্ষোভ মিছিল শেষ হয়।

বিক্ষোভ মিছিলে কেরানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহবায়ক ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি, কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম মামুন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শুভাঢ্যা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সোহরাব হোসেন খোকন, কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও জিনজিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ সাকুর হোসেন সাকু, কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আব্দুল বারেক, বাস্তা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ আশকর আলী, শুভাঢ্যা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী বাসের উদ্দিন, আগানগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর আসাদ হোসেন টিটু, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি হাজী মাহমুদ আলম, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এইচ এম সেলিম, যুবলীগ নেতা শিপু আহমেদ, থানা আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ রমজান আলী মেম্বার সহ এসময় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের কয়েক হাজার নেতাকর্মীরা এ বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহণ করেন।

এবিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ইনস্পেক্টর (অপারেশন) আশিকুর রহমান বলেন, সুমন মিয়া নামে এক আওয়ামী লীগের নেতা বাদী হয়ে বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। গতকাল রাতে অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে আটক করা হয়েছে এবং রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং মামলায় নাম থাকা অন্য নেতাকর্মীদেরকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এব্যাপারে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন অর রশীদ বলেন, গত শুক্রবার সকালে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নিপুন রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয়ে ভাংচুর করেছেন,এই ঘটনায় আওয়ামী লীগের ২০-২৫ জন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়েছে, এবিষয়ে একটি মামলাও হয়েছে, আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যেই মামলার অন্য আসামীদের আটক করে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করব ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button