sliderস্থানীয়

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বর্জন, তদন্ত কমিটি গঠন

হৃদয় রায়হান, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো. জাহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মানসিক নির্যাতন ও হেনস্থার অভিযোগ তুলে তাকে অপসারণের দাবিতে মিডটার্ম পরীক্ষা বর্জন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১ জুলাই) ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ২০২২-২৩ বর্ষের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা বর্জন করে কলেজের মুক্তমঞ্চের সামনে অবস্থান নেন। কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শিশির কুমার রায়ের কাছে ওই শিক্ষকের অপসারণে চেয়ে স্মারকলিপিও দেন শিক্ষার্থীরা।

৬৬ শিক্ষার্থী স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে অভিযোগ করা হয়, রোববার (৩০ জুন) অনুষ্ঠিত অনার্স প্রথম বর্ষের প্রস্তুতি পরীক্ষা শেষে শোভন রেজা নামে এক শিক্ষার্থীকে ক্লাস রুমের সামনে গলা টিপে ধরে গ্রিলের সঙ্গে ধাক্কা মারেন সহকারী অধ্যাপক জাহিদুল ইসলাম।

সেসময় অন্যান্য শিক্ষার্থীদেরও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন জাহিদুল।

অধ্যক্ষকে অভিযোগ জানাতে এসে শিক্ষার্থী দোলা মিত্র বলেন, ঘটনার দিন স্যার আমাকে ক্লাস রুমে দাঁড় করিয়ে রেখে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন এবং বাজেভাবে নোটিশ করে খারাপ ইঙ্গিত দেন।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, জাহিদুল ইসলাম শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন নাম্বার সংগ্রহ করে রাখেন এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা ও ইনকোর্স পরীক্ষায় অকৃতকার্য করার হুমকি দেন। স্যারের এরূপ ব্যবহারে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত।

কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর শিশির কুমার রায় বলেন, এ বিষয়ে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হচ্ছে। কমিটির প্রতিবেদনে অভিযোগের সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button