sliderরাজনীতিশিরোনাম

কারাগার থেকে বের হয়ে যা বললেন মির্জা ফখরুল

পতাকা ডেস্ক : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার না আসা পর্যন্ত সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে। আর গণতন্ত্রের জন্য এ লড়াইয়ে জনগণ জয়ী হবে ইনশাআল্লাহ।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) কারাগার থেকে মুক্ত হওয়ার পর উপস্থিত জনতা ও নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

দীর্ঘ সাড়ে তিন মাস কারাগারে বন্দী থাকার পর এদিন মুক্তি পান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে প্রথমে বের হয়ে আসেন মির্জা ফখরুল এবং তার পাঁচ মিনিট পর বের হন আমীর খসরু। কারাগার থেকে বের হওয়ার প্রধান ফটকে উপস্থিত হলে নেতা-কর্মীরা মুহুর্মুহু মুহুর্মুহু করতালি দিয়ে ফুলের পাঁপড়ি ছিটিয়ে তাদের বরণ করেন।

নেতা-কর্মীদের হাত তুলে অভিবাদন জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণ সব সময় গণতন্ত্রের জন্য, ভোটের অধিকারের জন্য, ভাতের অধিকারের জন্য সংগ্রাম করেছে, লড়াই করেছে। ইনশাআল্লাহ এই সংগ্রামে তারা জয়ী হবে।’

গণতন্ত্র ফেরানো চলমান আন্দোলন বিজয় না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহত থাকার কথাও দৃঢ়তার সাথে বলেন বিএনপি মহাসচিব।

পরে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘ওরা রাষ্ট্রশক্তিকে কবজা করে ক্ষমতা দখল করেছে, বাংলাদেশের মানুষ তাদেরকে প্রত্যাখান করেছে। তারা নির্বাচনে নৈতিকভাবে জনগণের কাছে পরাজিত হয়েছে।’

‘আমরা বলতে চাই, গণতন্ত্রের আন্দোলন অটুট থাকবে। যদি দেশে গণতন্ত্র ফেরত না আসবে, জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার না আসবে ততদিন এই সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।’

এসময় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রধান ফটকে বিএনপির নেতাদের মধ্যে তাইফুল ইসলাম টিপু, শামীমুর রহমান শামীম, নিপুণ রায় চৌধুরী, ফরহাদ হোসেন আজাদ, সাবেক সাংসদ আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম, ইসরাফিল খসরু চৌধুরী, শায়রুল কবির খান,
তার সহধর্মিণী রাহাত আরা বেগম, বিএনপি মহাসচিবের একান্ত সহকারী ইউনুস আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button