sliderস্থানীয়

কটিয়াদী থানার সোর্সের হয়রানির সুবিচার পেতে পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ

রতন ঘোষ,কটিয়াদী প্রতিনিধি : জয়নাল কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার চাঁন্দপুর ইউনিয়নের টান চারিয়া গ্রামের একজন সহজ সরল চাষী। তার প্রতিবেশি সোরাব মুন্সী(৩৫) দীর্ঘ দিন যাবত কটিয়াদী থানার সোর্স হিসাবে কাজ করতেছে। সম্প্রতি উল্লেখিত সোরাব মুন্সী উক্ত গ্রামে আসামী খুঁজতে এসে প্রতিনিয়ত রাত্রে জয়নালের বাড়ীতে পুলিশ নিয়ে অযথা হয়রানি করে ।তাই কটিয়াদী থানার সোর্স সোরাবের হয়রানির সুবিচার পেতে কিশোরগঞ্জ পুলিশ সুপার বরাবর জয়নাল অভিযোগ করেছে ।উল্লেখ্য যে -সে প্রতিবাদ করিলে পুলিশ সবুজ সহ উক্ত সোরাব তাকে মারপিট সহ বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এলাকায় সোরাব থানার দালাল হিসাবে যথেষ্ঠ প্রভাব থাকায় এলাকার কেউ তার বিরুদ্ধে কোন ধরনের মন্তব্য করতে সাহস পায় না। উল্লেখযোগ্য আজ থেকে ৬/৭ বছর পূর্বে উক্ত সোরাব জয়নালের ১২/১৪ বছরের ২ ছেলে এবং ১৪ বছরের ১ মেয়ে রেখে তার বিবাহিতা স্ত্রী ছালমাকে জোর পূর্বক বাড়ী থেকে নিয়ে অবৈধ ভাবে বিয়ে করে ফেলে । এই ব্যাপারে তখন কার সময় কটিয়াদী থানা সহ বিভিন্ন জায়গায় বিচার চেয়ে ও সোরাবের বিরুদ্ধে কেউ বিচার করতে সাহস পায় নি ।যার ফলে নিরুপায় হয়ে সে এবংতার সন্তানদের জীবনের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে চুপ করে থাকে।তবে বেশ কিছু দিন যাবত সোরাব প্রায় প্রতিরাতেই সবুজ দারোগাকে সাথে নিয়ে আরো পুলিশ সহ চারিয়া গ্রামে গিয়ে তাকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তার ঘরে অবৈধ ভাবে প্রবেশ করে বিভিন্ন ধরনের হয়রানি করে,এমন কি তার বসত ঘরে বিভিন্ন ধরনের মামলার আসামী আছে এই মর্মে হুমকি দেয়। বর্তমানে জয়নাল সন্তানদের নিয়ে বাড়ীতে খুবই অসহায় অবস্থায় আছে।সোরাব যে কোন সময় আরও হয়রানি সহ বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে তাই তার সুবিচারের জন্য পুলিশ সুপার মহোদয়ের স্নরনাপন্ন হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button