sliderস্থানীয়

কটিয়াদীর করগাঁওয়ে সালিশে এমপির উপস্থিতিতে ব্যাপক সংঘর্ষ

রতন ঘোষ, কটিয়াদী প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের এক সালিস দরবারে বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্যদ্বয়ের উপস্থিতিতে করগাওঁয়ের ইউপি চেয়ারম্যান ও এক মেম্বারের সমর্থকদের মধ্যে চেয়ার ছুড়াছুড়ি ও মারপিটের ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল বিকেলে করগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান লায়ন মোহাম্মদ নাদিম মোল্লা ও একই ইউপির ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার মাহবুবুর রহমান পানুর মধ্যে সৃষ্ট পূর্ববিরোধ নিষ্পত্তির লক্ষ্যে করগাঁও হাই স্কুল মাঠে এক সালিশ দরবারের আয়োজন করা হয়। এ সময় সাবেক সংসদ সদস্য মেজর অবসরপ্রাপ্ত আখতারুজ্জামান রঞ্জন, বর্তমান সংসদ সদস্য এডভোকেট সোহরাব উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এম এ আফজল, কটিয়াদী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান লায়ন মোহাম্মদ আলী আকবর, এডভোকেট মাহামুদুল ইসলাম জানু এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি সহ প্রায় কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এক পর্যায়ে একপক্ষ অপর পক্ষের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়া কে কেন্দ্র করে উত্তেজনার সৃষ্টি হয় এবং চেয়ার ছুড়াছুড়ি হয়, যার ফলে কয়েকজন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ করে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। মুহূর্তেই ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় এলাকার এক ব্যক্তির নিকট পাওনা টাকা আদায় ও ভিজিডি চাউল বরাদ্দের বিষয় নিয়ে গত রমজান মাসে করেগাঁও ইউপির ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার মাহবুবুর রহমান পানু কে পরিষদ থেকে ধরে নিয়ে করগাঁও এলাকার কিছু লোক অপমান করে। তাদের এই অভিযোগের ব্যাপারে চেয়ারম্যান কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায়, বিষয়টি অন্যান্য মেম্বার ও এলাকার লোকজনদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। যার ফলে ঘটনাটি সুস্ঠু সমাধানের লক্ষ্যে সালিশ দরবার বসে। কিন্তু গোলযোগের কারণে সালিশ দরবার পন্ড হয়ে যায়। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান লায়ন মোহাম্মদ নাদিম মুল্লার সাথে মোবাইলে কথা বলতে চাইলে তার মোবাইল বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

কটিয়াদী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ দাউদ বলেন, এই ঘটনায় কেউ আহত হয়নি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। তবে এলাকায় বিশেষ নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button