sliderউপমহাদেশশিরোনাম

ওয়েনাড আসন ছেড়ে দিলেন রাহুল গান্ধী, সেখানে লড়বেন প্রিয়াঙ্কা

ভারতে এবারের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী উত্তরপ্রদেশের রায়বেরিলি ও কেরালার ওয়ানাড় দুই জায়গা থেকেই বিপুল ভোটে জিতেছিলেন। এর মধ্যে রায়বেরিলি থেকে তিনি জিতেছেন তিন লাখ ৯০ হাজার ৩০ ভোটের ব্যবধানে। আর ওয়ানাড় থেকে তিনি জিতেছিলেন তিন লাখ ৬৪ হাজার ৪২২ ভোটে।

নিয়ম অনুযায়ী, দুইটি কেন্দ্রের মধ্যে একটি ছেড়ে দিতে হতো রাহুলকে। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি ঘোষণা করেছেন, তিনি রায়বেরিলি রাখছেন, ওয়ানাড় ছেড়ে দিচ্ছেন। সেখান থেকে বোন প্রিয়াঙ্কা লড়বেন। আর এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে এক জল্পনার অবসান হলো, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী নির্বাচনে লড়বেন।

বোন প্রিয়াঙ্কা, দলের সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে এবং কেরালার নেতা কে সি বেনুগোপালকে পাশে নিয়ে রাহুল জানিয়েছেন, ”এই সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ ছিল না। গত পাঁচবছর ধরে আমি ওয়ানাড়ের প্রতিনিধি ছিলাম। সেখানকার মানুষ আমাকে ভালোবাসা দিয়েছেন। আবার রায়বেরিলির সঙ্গে আমার পরিবারের দীর্ঘদিনের যোগ। সেখানকার মানুষও আমাকে ভালোবাসেন।

রাহুল জানিয়েছেন, তিনি সাংসদ না থাকলেও আগের মতো বারবার ওয়ানাড় যাবেন। আর বোন প্রিয়াঙ্কা তো থাকবেনই। আর প্রিয়াঙ্কা দীর্ঘদিীন ধরে রায়বেরিলিতে কাজ করেছেন। ফলে দুই কেন্দ্রের মানুষ কার্যত দুইজন করে সাংসদ পাবেন।

প্রিয়াঙ্কাও জানিয়েছেন, আমি ওয়ানাড়ের জন্য কাজ করব। সেখানে ভাইয়ার অভাব বুঝতে দেব না। আমি ওয়ানাড়ে সবাইকে খুশি করার চেষ্টা করব। আমি একজন ভালো প্রতিনিধি হওয়ার চেষ্টা করব।

প্রায় প্রতিটি লোকসভাতেইপ্রিয়াঙ্কাকে নিয়ম করে একটা প্রশ্ন শুনতে হতো, সেটা হলো, তিনি কি এবার ভোটে লড়ছেন? আর প্রতিবার নিয়ম করে প্রিয়াঙ্কা একটাই জবাব দিতেন, তার ভোটে দাড়ানোর কোনো ইচ্ছে নেই। প্রতিবার মায়ের কেন্দ্র রায়বেরিলি ও ভাইয়ের সাবেক কেন্দ্র আমেঠির জন্য কাজ করতেন তিনি। বস্তুত, এই দুইটি কেন্দ্রর দেখভালও তিনিই করতেন।

এবার সেই প্রিয়াঙ্কা ভোটে প্রার্থী হচ্ছেন, সেটাও কেরালা থেকে। রাহুলের জিতে আসা কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কা লড়বেন। কংগ্রেসের কাছে এই কেন্দ্রে গান্ধী পরিবারের কাউকে রাখা জরুরি ছিল। কারণ, ২০২৬ সালে কেরালায় বিধানসভা নির্বাচন। বামেদের হাত থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেয়ার আশা করছে কংগ্রেস। সেখানে তারা এমন কোনো পদক্ষেপ নিতে চাননি, যার জন্য মানুষ তাদের উপর বিন্দুমাত্র ক্ষুব্ধ হন। রাহুলের জায়গায় তাই প্রিয়াঙ্কাকে দাঁড় করানো হয়েছে।

বিজেপি অবশ্য এই ঘোষণার পরেই আবার কংগ্রেসের পরিবারবাদ নিয়ে সোচ্চার হয়েছে।

ডয়চে ভেলে

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button