sliderরাজনীতিশিরোনাম

আওয়ামীলীগের লুটেরাদের সামাজিকভাবে বয়কট করুন-এবি পার্টি

পতাকা ডেস্ক: বিভিন্ন খাদ্য দ্রব্যের চরম মূল্য বৃদ্ধির কারণে আজ জনগণ কখনও তরমুজ খাওয়া বাদ দিচ্ছে, কখনও বা গরুর মাংস খাওয়া বাদ দিচ্ছে। কিন্তু আমাদের মূল সমস্যা চিহ্নিত করতে হবে। কারা জিনিস পত্রের দাম বাড়াচ্ছে, কারা লুটপাট করছে। খোঁজ নিলে দেখা যাবে আওয়ামীলীগের আশ্রয় প্রশ্রয়ে গড়ে ওঠা বিভিন্ন সিন্ডিকেট আজ জনগণের অর্থ লুটকরে সম্পদের পাহাড় গড়ছে। আমদানি রাপ্তানী সিন্ডিকেট করে কৃত্রিম সংকট তৈরি করছে। এই সব কিছুর জন্য দায়ী আওয়ামীলীগের ভেতরকার কতিপয় লুটেরা । এই জন্য এখন তরমুজ বা গরুর মাংস খাওয়া বাদ নয় বরং আওয়ামীলীগের মধ্যকার লুটেরাদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন এবি পার্টির গণ ইফতারে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ।
এবি পার্টি আয়োজিত মাসব্যাপী গণ ইফতারের ২০ তম দিনে পার্টির যুগ্ম আহবায়ক বিএম নাজমুল হকের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক আনোয়ার সাদাত টুটুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ন্যাপের মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, এনডিপির মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা। বক্তব্য রাখেন এবি পার্টির সহকারী সদস্যসচিব ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ লোকমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হালিম খোকন ও মহানগর উত্তরের সদস্যসচিব সেলিম খান।

ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, বিদ্যমান বড় রাজনৈতিক দল গুলো দেশের মানুষের সাথে যে আচরণ করছে বা রাজনীতির মাঠে তারা যে কার্যক্রম করছে তাতে নতুন রাজনীতি আসন্ন হয়ে পরেছে। জনগণকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যেন তারা সৎ, ভালো মানুষদের নেতৃত্ব মানেন। ভালো লোকদের ভোট দেন। মার্কা দেখে ভোট দেওয়ার রেওয়াজ থেকে বের হয়ে ভালো মানুষদের নেতৃত্বে আনতে হবে। শুধু দল বদল আর ক্ষমতার রদবদল হলে হবেনা। তিনি এবি পার্টিকে গণ ইফতারের মতো মহতী উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানান।


মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, এই সরকার জনগণের সম্পদ লুট করছে, ভোটের অধিকার হরণ করেছে, শত শত মানুষকে গুম করেছে। এখন জিনিস পত্রের দাম এমন ভাবে বাড়াচ্ছে যেন মানুষের পক্ষে একবেলা সুষ্ঠু ভাবে খেতে পারছেনা। জনগণ দামের কারণে তরমুজ বয়কট করছে, এখন গরুর মাংস বয়কট করছে কিন্তু বাস্তব অবস্থা হচ্ছে এই সমস্ত কাজের জন্য যারা দায়ি সেই আওয়ামীলীগ নেতাদেরকে বয়কট করতে হবে। তিনি আরও বলেন, এবি পার্টি জনগণের জন্য কাজ করার চেষ্টা করছে। আপনারা এবি পার্টির সাথে নিজেদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে সচেষ্ট হন। তিনি এবি পার্টিকে এই উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানান।
ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ লোকমান বলেন, জনগণকে এখন জাগতে হবে। আমাদের দেশে জনগণের অধিকার হরণ করছে আওয়ামীলীগ ইন্ডিয়ার সাহায্যে। এখন ইন্ডিয়া বয়কটের ডাক দিচ্ছেন অনেকে। আসলে এখন আমাদের আওয়ামীলীগকে বয়কট করতে হবে।
গণ ইফতারে আরও উপস্থিত ছিলেন এবি যুবপার্টির আহবায়ক এবিএম খালিদ হাসান, মহানগর উত্তরের আহবায়ক আলতাফ হোসাইন, মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সদস্য সচিব কেফায়েত হোসেন তানভীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হালিম নান্নু, যুবপার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক তোফাজ্জল হোসেন রমিজ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মশিউর রহমান মিলু, শরণ চৌধুরী, আমেনা বেগম, রুনা হোসাইন, পল্টন থানা আহবায়ক আব্দুল কাদের মুন্সি, যাত্রাবাড়ী থানা সমন্বয়ক সিএমএইচ আরিফ, পল্টন থানা সদস্যসচিব রনি মোল্লা সহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button