sliderখেলা

অসময়ে জ্বলে উঠলো পাঞ্জাব

লক্ষ্যমাত্রা ছিল মাত্র ১২৫ রান৷ ফল যা হওয়ার তাই হলো৷ ১৮ বল বাকি থাকতেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে সাত উইকেটে ম্যাচ জিতে নিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব৷ বোলারদের দাপটের পর বাংলার উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা এবং দলের অধিনায়ক মুরলি বিজয়ের অর্ধ-শতরানে ম্যাচ থেকে দু’পয়েন্ট পেল প্রীতি জিন্টার দল৷ তবে এই জয়টা এলো বেশ অসময়ে। তারা শেষ চারে থাকার সম্ভাবনা এর মধ্যেই শেষ করে ফেলেছে। তবে গত ম্যাচে হারার পর শোনা গিয়েছিল, প্রীতি জিন্টা ধমক দিয়েছিলেন কোচকে। পরে অবশ্য দুই পক্ষই বিষয়টা অস্বীকার করেছে। যা-ই হোক না কেন, কথিত সেই ধমকে কাজ হয়েছে বলা যায়।

শুক্রবার আইপিএলের ম্যাচে যদিও রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান হাসিম আমলার উইকেট হারায় পাঞ্জাব৷ কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে বিজয় ও ঋদ্ধির ৮৮ বলে ১১৬ রানের পার্টনারশিপ ম্যাচ থেকে সরিয়ে দেয় মুম্বইকে৷ তিন নম্বরে নামা ঋদ্ধিমান ৪০ বলে ৫৬ রান করেন৷ তার মধ্যে রয়েছে ছ’টি চার ও একটি ছয়৷ বাংলার খেলোয়াড়টি আউট হয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন বিজয়৷ তিনি পাঁচটি চার ও একটি ছ’য়ের সৌজন্যে ৫২ বলে ৫৪ রান করেন৷ যদিও ঋদ্ধি আউট হওয়ার পর ক্রিজে আসা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল প্রথম বলেই শূন্য রান করে ডাগ-আউটে ফেরেন৷ কিন্তু তাতে কিংসদের বড় জয়ে কোনও বাধার সৃষ্টি হয়নি৷ মুম্বই বোলারদের মধ্যে মিচেল ম্যাকলানাঘান দু’টি এবং টিম সাউদি একটি উইকেট পেয়েছেন৷

এর আগে প্রথম ইনিংসে ফের একবার ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বোলিং আক্রমণের সামনে কুড়ি ওভারে ন’উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২৪ রান করতেই সক্ষম হয় রোহিত অ্যান্ড কোং৷ পঞ্জাবের হয়ে দুরন্ত বোলিং করেন মার্কাস স্টোইনিস৷ তিনি চার ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়ে চার উইকেট নেন৷

দিনের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার মুম্বই অধিনায়ক রোহিত শর্মার সিদ্ধান্ত তার দলের জন্যই বুমেরাং হয়ে যায়৷ ব্যক্তিগত শূন্য রানে ওপেনার উন্মুক্ত চাঁদ ও তিন নম্বরে নামা অম্বাতি রায়াড়ুকে ডাগ-আউটে ফেরান মোহিত শর্মা ও সন্দীপ শর্মা৷ এরপর অধিনায়ক রোহিতও মাত্র ১৫ রান করে ফিরে যান৷ রোহিতের পর জোস বাটলারও (৯) বেশিক্ষণ ক্রিজে ছিল না৷ পরের দিকে পোলার্ড(২৭), রানা(২৫), ক্রুনাল পান্ডিয়া(১৯) কিছুটা চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত স্কোরবোর্ডে ১২৪ রান তোলে মুম্বই৷ শেষ পাঁচ ওভারে ৪৪ রান করলেও চার উইকেট হারায় রোহিতরা৷ যার মধ্যে ১৬ তম ওভারে ১৭ রান নিলেও পরের ওভারে স্টোইনিস পরপর দু’বলে পান্ডিয়া ও পোলার্ডকে আউট করে দেন৷
পাঞ্জাব বোলারদের মধ্যে স্টোইনিস ছাড়াও দুর্দান্ত বোলিং করেন সন্দীপ শর্মা ও মোহিত শর্মা৷ দু’জনেই দু’টি করে উইকেট পেয়েছেন৷ এছাড়া অক্ষর প্যাটেল একটি উইকেট পেয়েছেন৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন মার্কাস স্টোইনিস৷

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button